বদায়ুন গণধর্ষণ-খুন কাণ্ডে গ্রেপ্তার মূল অভিযুক্ত পুরোহিত

202

লখনউ: উত্তরপ্রদেশের বদায়ুনে গণধর্ষণ ও খুনের ঘটনায় অবশেষে গ্রেপ্তার প্রধান অভিযুক্ত পুরোহিত সত্যনারায়ণ। রবিবার সন্ধ্যায় সেই কুকীর্তি ঘটানোর পর থেকেই ওই এলাকায় গা ঢাকা দিয়েছিল সে। পরিকল্পনা ছিল পুলিশের চোখে ধুলো দিয়ে পালিয়ে যাওয়ার। তবে শেষ রক্ষা হল না। বৃহস্পতিবার রাতেই পুলিশের জালে ধড়া পড়ল সে।

প্রসঙ্গত, রবিবার সন্ধ্যায় উত্তরপ্রদেশের বদায়ুন জেলার উঘাইতি থানা এলাকায় মন্দিরে পুজো দিতে গিয়েছিলেন বছর ৫০ এর এক অঙ্গনওয়াড়ি কর্মী। রাতে তাঁর মৃতদেহ উদ্ধার হয়। অভিযোগ, পুরোহিত ও তার দুই সঙ্গী মহিলার বাড়ির সামনে এসে মৃতদেহটি রেখে পালিয়ে যায়। এরপরেই পুলিশে অভিযোগ জানায় মৃতার পরিবার। অভিযোগের প্রেক্ষিতে শুরু হয় ঘটনার তদন্ত। অভিযুক্তদের ধরতে পুলিশের তরফে চারটি পৃথক টিম গঠন করা হয়।

- Advertisement -

পুলিশ সূত্রে খবর, মঙ্গলবার মৃতার ময়নাতদন্তের রিপোর্ট থেকেই স্পষ্ট হয় তাঁকে ধর্ষণ করা হয়েছিল। অন্যদিকে, তাঁর গোপনাঙ্গে গুরুতর জখমের একাধিক চিহ্ন ছিল। এমনকি পাশবিক অত্যাচারের জেরে একাধিক হাড়গোড় সহ একটি পা ভেঙে গিয়েছিল। এদিকে, মৃতার পরিবারের অভিযোগ ও এলাকাবাসীর বিবরণের ভিত্তিতে তিনজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করে তদন্ত শুরু করে পুলিশ। শেষ অবধি মিলল সাফল্য। গ্রামবাসীদের তৎপরতায় পুলিশের জালে ধড়া পড়ল মূল অভিযুক্ত সত্যনারায়ণ।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে খবর, সত্যনারায়ণের আসল বাড়ি বদায়ুনে নয়, সে বালিয়ার বাসিন্দা। বছর সাতেক আগে বদায়ুনের ওই মন্দিরে পুরোহিত হিসেবে যোগ দিয়েছিল সে।