টিকা নিয়ে জটিলতায় প্রতিযোগিতা বাতিল

মেলবোর্ন : সরকারিভাবে টিকাকরণ নিয়ে অবস্থান স্পষ্ট করা হচ্ছে না। এই পরিস্থিতিতে অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের একটি প্রস্তুতি প্রতিযোগিতা বাতিল করতে বাধ্য হলেন আয়োজকরা।

বছরের প্রথম মেজর অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের ঠিক আগে মেলবোর্নে কুয়ং ক্লাসিক নামে এই প্রতিযোগিতা হয়। কিন্তু আগামী বছর প্রতিযোগিতায় কারা অংশ নিতে পারবেন, তা এখনও স্পষ্ট নয়। কারণ অস্ট্রেলিয়া সরকার বা ভিক্টোরিয়া প্রদেশের প্রশাসন এখনও টিকা নিয়ে অবস্থান স্পষ্ট করেনি। ফলে মেলবোর্নে খেলার জন্য টিকা বাধ্যতামূলক করা হবে কি না এবং টিকা না থাকলে কতদিন কোয়ারান্টিনে থাকতে হবে তা জানেন না প্লেয়াররা। এই পরিস্থিতিতে প্রতিযোগিতা বাতিল করা ছাড়া আর কোনও পথ নেই বলে দাবি আয়োজকদের। কুয়ং ক্লাসিকের অন্যতম কর্তা অ্যাডাম কোসার এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন, আগামী জানুয়ারিতে প্রতিযোগিতা হওয়ার কথা। অথচ এখনও কিছু বিষয় স্পষ্ট নয়। ফলে ভালোভাবে ও নিরাপদে প্রতিযোগিতা আয়োজন সম্ভব নয়। তাঁর আশা আগামী বছর না হলেও ২০২৩ সালে ফের এই প্রতিযোগিতা হবে।

- Advertisement -

ইতিমধ্যেই মেলবোর্নে খেলতে যাওয়া নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছেন সার্বিয়ান টেনিস কিংবদন্তি নোভাক জকোভিচ। নিজের টিকাকরণ সংক্রান্ত তথ্য জানাতে রাজি নন ৯ বারের অস্ট্রেলিয়ান ওপেন জয়ী এই তারকা। তবে সম্প্রতি ডব্লিউটিএ-র ফাঁস হওয়া এক ইমেলে দাবি করা হয়েছে, টিকা না থাকলেও প্লেয়াররা অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে অংশ নিতে পারবেন। সেক্ষেত্রে তাঁদের ১৪ দিন কোয়ারান্টিনে থাকতে হবে। অন্যদিকে, দুডোজ টিকা নেওয়া থাকলে সম্পূর্ণ স্বাধীনতা উপভোগ করা যাবে। অবশ্য ভিক্টোরিয়া প্রদেশের প্রিমিয়ার ড্যান অ্যান্ড্রুজের বক্তব্য, অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের সব দশর্ক, সব কর্মী দুডোজ টিকা নিয়ে প্রতিযোগিতায় অংশ নেবেন। ফলে বাইরে থেকে যাঁরা আসছেন, তাঁদের টিকাকরণ সম্পূর্ণ হওয়াটাই বাঞ্চনীয়।

এই দাবি-পাল্টা দাবির টানাপোড়েনে ফের বাতিল হল অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের পুরোনো ঘর কুয়ং টেনিস ক্লাবের প্রতিযোগিতা।