বিসর্জন ঘাট সাজানোর কাজ শুরু করল মাল পুরসভা

92

মালবাজার: বিসর্জন ঘাট সাজানোর কাজ শুরু করল মাল পুরসভা। শহরের উত্তর-পূর্ব সীমান্তে মাল নদীর ধারে বিসর্জন ঘাট রয়েছে। ৩১ নম্বর জাতীয় সড়ক থেকে বিসর্জন ঘাট পর্যন্ত রাস্তাটির বেহাল দশা। মাল নদীর জল বৃদ্ধির প্রবণতায় বিসর্জনের দুশ্চিন্তা বাড়িয়েছে।

প্রতিবারই মাল নদীতে প্রতিমা নিরঞ্জন পর্ব পরিচালনা করতে পুরসভা, প্রশাসনিক, পুলিশ আধিকারিকরা এবং কর্মীরা উপস্থিত থাকেন। পুরসভা যাবতীয় কর্মকাণ্ড পরিচালনা করে।  তবে পাহাড়ি নদীর হঠাৎ জল বেড়ে যাওয়ার প্রবণতা নিয়ে বিসর্জন ঘাটে বরাবরই দুশ্চিন্তা থাকে। প্রশাসনিক মহল থেকে এ বিষয়ে সতর্কতা বজায় রাখার জন্য প্রচার চালানো হয়। নদীর শুকনো এলাকাতে আবর্জনা নিয়েও সমস্যা রয়েছে, পুরসভা সার্বিকভাবেই নদী ঘাট সাজিয়ে তোলার উদ্যোগ নিয়েছে।

- Advertisement -

পুরসভার প্রশাসক মণ্ডলীর সদস্য বিকাশ মোড় বলেন, ‘আমরা রাস্তাটিতে বালি বজরি ফেলছি। পুজোর দু-তিন দিন ধরে রোলার চালিয়ে রাস্তাটি সমতল করে দেওয়া হবে। আশেপাশের ঝোপঝাড় কাটা হয়েছে। বিসর্জন ঘাটে আলোর ব্যবস্থা থাকবে। সকলকেই বিসর্জনের নিয়ম মেনে চলতেই হবে। ঘাটে স্বেচ্ছাসেবী বাহিনীও থাকবে।‘

শিববাড়ি মহাবীর স্থান দুর্গাপুজো কমিটির রমেশ গিরি বলেন, ‘আমরা প্রশাসনিক নির্দেশ ও বিধি মেনে এবার দুর্গাপুজো করছি। আমাদের কমিটির তরফে সকলকে বিসর্জন ঘাটে সচেতন থাকার কথা আগাম বলে দেওয়া হয়েছে।‘