দুষ্কৃতীদের নজরে মালদা কলেজ, ফের একবার চুরির চেষ্টা

111

মালদা: ফের দুষ্কৃতী হানা মালদা কলেজের জুওলজি ডিপার্টমেন্টে। অভিযোগ, বুধবার রাতে ওই ডিপার্টমেন্টের জানালা ভেঙে বিভিন্ন সরঞ্জাম নিয়ে পালানোর চেষ্টা করে এক দুষ্কৃতী। সেই সময় এক নৈশপ্রহরী নজরে পড়ে ঘটনাটি। অবস্থা বেগতিক দেখে পালিয়ে যায় এক দুষ্কৃতী। যাওয়ার সময় ফেলে যায় চুরি করা সামগ্রী। ঘটনায় এখনও অবধি কাউকে গ্রেপ্তার করা হয়নি বলেই খবর। ঘটনার তদন্ত করছে পুলিশ।

মালদা কলেজ সূত্রে জানা গিয়েছে, গতরাতে জুওলজি ডিপার্টমেন্টের প্রাচীর টপকে বস্তাবন্দি সামগ্রী পাচার করছিল এক দুষ্কৃতি। কর্তব্যরত নৈশপ্রহরীর নজরে আসে ঘটনাটি। এরপর তাকে ধাওয়া করতেই চুরি করা সামগ্রী কলেজ মাঠে ফেলে পালিয়ে যায় দুষ্কৃতি। পরবর্তীতে খবর দেওয়া হয় কলেজ কর্তৃপক্ষকে। ঘটনাস্থলে ওই বিভাগের প্রধান সহ অন্যান্যরা পৌঁছান। কলেজের অধ্যক্ষ জেলার বাইরে থাকার দরুণ ফোন মাধ্যমে খবর দেওয়া হয় তাঁকে। রাতেই ইংরেজবাজার থানায় মৌখিকভাবে অভিযোগ জানানো হয়।

- Advertisement -

মালদা কলেজের টিচার-ইন-কাউন্সিলের সম্পাদক পিযূষ সাহা বলেন, ‘গতকাল রাত সাড়ে আটটা নাগাদ আমরা খবর পেয়ে কলেজে আসি। খুলে দেখতে পাই দুষ্কৃতীরা হানা দিয়েছে দোতালার জুওলজি ডিপার্টমেন্টে। ওই দপ্তরের জানালা ভেঙে দুষ্কৃতীরা ভিতরে ঢোকে। এরপর জুওলজি দপ্তরে থাকা মাইক্রোস্কোপ সহ অন্যান্য সামগ্রী বস্তায় ভরে নিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা করে। কিন্তু সেই সময় ঘটনাটি এক নৈশপ্রহরীর নজরে আসায় ক্ষতির হাত থেকে বাঁচা গেল।’

উল্লেখ্য, গত কয়েক মাসে মালদা কলেজে কখনও বোটানি দপ্তরে কখনও আবার জুওলজি দপ্তরে চুরির ঘটনা ঘটেছে। চুরি হয়েছে একটি ছাত্রাবাসেও। প্রতিটি ক্ষেত্রেই পুলিশে অভিযোগ জানানো হলেও এখনও পর্যন্ত কোন দুষ্কৃতী গ্রেপ্তার হয়নি। ঘটনায় প্রশ্ন উঠেছে পুলিশের ভূমিকায়। পাশাপাশি প্রশ্ন উঠেছে কলেজের নিরাপত্তা নিয়েও। বারবার একটি দপ্তরে চুরির ঘটনা ঘটলেও নিরাপত্তা বৃদ্ধি করা হয়নি। প্রতিটি ক্ষেত্রেই দেখা যাচ্ছে দুষ্কৃতীরা মাঠের দিকে জানালা ভেঙে চুরি করছে।