উত্তরে প্রথম দফার ভোট মিটতেই ফের প্রাচারে মমতা-নাড্ডা

55

রাজগঞ্জ: রাজগঞ্জ বিধানসভা কেন্দ্রে জয়ী হতে একই দিনে জনসভা তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দোপাধ্যায় এবং বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নাড্ডার। আগামী ১১ এপ্রিল তৃণমূলের জনসভা হবে আমবাড়িতে এবং বিজেপির সভা হবে বেলাকোবায়। কোন দলের জনসমর্থন বেশি তা প্রমাণ করতে দু’দলই কোমর বেঁধে ময়দানে নেমে পড়েছে। তৃণমূল প্রার্থী খগেশ্বর রায় বলেন, ‘নাড্ডা বা যত বড় নেতা জনসভা করুক না কেন মুখ্যমন্ত্রীর জনসভায় লোকের ভিড় বেশি হবেই।’ এদিকে বিজেপির সভায় বেশি ভিড় হবে বলে দাবি দলের জলপাইগুড়ি জেলার সভাপতি বাপি গোস্বামীর।

সোমবার আমবাড়ি এলাকার সুদামগঞ্জের মাঠে মঞ্চ তৈরি শুরু করে দিয়েছে তৃণমূল। এদিন তৃণমূল প্রার্থী খগেশ্বর রায় বিধানসভা কেন্দ্রে দলের নির্বাচন কমিটির চেয়ারম্যান কৃষ্ণ দাস, তৃণমূলের ব্লক সভাপতি বিধান রায়, যুব সভাপতি তুষারকান্তি দত্তকে নিয়ে মঞ্চ তৈরির খুঁটি পুঁতে কাজের সূচনা করেন। এছাড়া রাজগঞ্জ বিধানসভা কেন্দ্রে দলের নির্বাচনি প্রচারের জন্য তিনটি ট্যাবলো উদ্বোধন করার পাশাপাশি সুদামগঞ্জে একটি দলীয় কার্যালয় উদ্বোধন করেন।

- Advertisement -

খগেশ্বরবাবু বলেন, ‘ভোটের ছয় দিন আগে মুখ্যমন্ত্রী সুদাম গঞ্জের মাঠে জনসভা করবেন। এতে দলের কর্মীরা বাড়তি অক্সিজেন পাবেন। একই দিনে বিজেপি জনসভা করলেও তৃণমূলের জনসভায় পঞ্চাশ হাজারের বেশি লোক হবে।’ অন্যদিকে, ওই সভার দিনে তৃণমূল প্রার্থীর খাস তালুক বেলাকোবায় জনসভা করার উদ্যোগ নিয়েছে বিজেপি। আপাতত বেলাকোবার পাবলিক ক্লাব মাঠকে বাছাই করা হয়েছে বলে দলীয় সূত্রে জানা গিয়েছে।

বিজেপির জলপাইগুড়ি জেলার সভাপতি বাপি গোস্বামী বলেন, ‘১১ এপ্রিল দলের সর্বভারতীয় সভাপতি জগত প্রকাশ নাড্ডার সভা হবে বেলাকোবায়। তৃণমূলের থেকে বেশি লোক জমায়েত করার চেষ্টা চলছে। তার আগে ৯ এপ্রিল রাজগঞ্জ বাজার এলাকায় বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ দলীয় প্রার্থীকে নিয়ে রোড শো করবেন।’