‘নন্দীগ্রামে আমাকে খুনের চক্রান্ত হয়েছিল’, অভিযোগ মমতার

195
ছবি : সংগৃহীত

কলকাতা: ‘নন্দীগ্রামে আমাকে খুনের চক্রান্ত হয়েছিল।’ শনিবার তৃণমূল যুব কংগ্রেসের প্রতিষ্ঠা দিবসের মঞ্চ থেকে এমনই অভিযোগ তুললেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্য়োপাধ্যায়। এর আগেও একাধিকবার তাঁকে খুনের চক্রান্ত করা হয়েছিল বলে অভিযোগ তোলেন মমতা। আর নন্দীগ্রামে খুনের চক্রান্তের প্রসঙ্গে তাঁর এদিনের মন্তব্য যথেষ্টই চাঞ্চল্যকর বলে মনে করা হচ্ছে।

এদিন বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে সরাসরি তোপ দাগেন মমতা। তাঁর কথায়, দিল্লি রাজনীতিতে না পারলে এজেন্সি লেলিয়ে দেয়। এরপরেই রাজ্য সরকারের উন্নয়নের খতিয়ান তুলে ধরেন তিনি। একইসঙ্গে শিক্ষক নিয়োগের বিষয়ও তুলে ধরেন তিনি। বিজেপি সরকারকে তাণ্ডবীয়, দানবীয় বলেও আক্রমণ করেন মমতা। তাঁর কথায়, ‘বিজেপির দুটি কাজ। এক গুলি চালানো, আর গালি দেওয়া।’

- Advertisement -

প্রসঙ্গত, চলতি বছরের ১০ মার্চ নন্দীগ্রামের তৃণমূল প্রার্থী হিসেবে হলদিয়া মহকুমা শাসকের দপ্তরে মনোনয়ন পেশ করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এরপর সোনাচূড়া মন্দিরে পুজো দিতে যান তিনি। সন্ধ্যায় স্থানীয় বিরুলিয়া বাজারে যান। সেখানেই স্থানীয় বাসিন্দাদের সঙ্গে কথা বলার সময় পায়ে গুরুতর চোট পান মমতা। তড়িঘড়ি গ্রিন করিডরের মাধ্যমে তাঁকে কলকাতায় ফিরিয়ে আনা হয়। ভর্তি করা হয় এসএসকেএম হাসপাতালে। তাঁর বাম পায়ের গোড়ালি ও পাতায় চিড় থাকায় প্লাস্টার করা হয়। তারপর থেকে হুইলচেয়ারে করেই রাজ্যের একাধিক অঞ্চলে নির্বাচনি সভা করেন মমতা।