নন্দীগ্রাম থেকেই ২০২১-এ জেতার পালা শুরু: মমতা

188

নন্দীগ্রাম: নন্দীগ্রাম থেকেই ২০২১-এ জেতার পালা শুরু হল। সোমবার শুভেন্দু অধিকারীর গড়ে সভা থেকে এমনই সুর তুললেন তৃণমূল সুপ্রিমো তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এছাড়া, রাজ্য সরকার নন্দীগ্রামে নিখোঁজ ও শহিদ পরিবারকে পেনশন দেওয়ার ব্যবস্থা করবে বলে ঘোষণা করেন তিনি। এদিকে, বিজেপিকে ‘ওয়াশিং পাউডার ভাজপা’ বলেও কটাক্ষ করেন মমতা।

নন্দীগ্রামের তেখালির মাঠে আয়োজিত সভা থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘আমি যদি নন্দীগ্রামে ভোটে দাঁড়াই, কেমন হয়? নন্দীগ্রাম থেকেই শুরু ২০২১-এ জেতার পালা।’ নন্দীগ্রামের শহিদদের উদ্দেশে মমতা বলেন, ‘নন্দীগ্রামের শহিদদের কোনওদিন ভুলিনি, ভুলব না। অত্যাচার, অনাচারকে সহ্য করে যেভাবে আপনারা আন্দোলন করেছিলেন, তার কোনও তুলনা হয় না। যদি কোনও সমস্যা হয়, সরাসরি দুয়ারে সরকারে যাবেন, তাড়াতাড়ি সমস্যার সমাধান হবে। রাজ্য সরকার নন্দীগ্রামে নিখোঁজ ও শহিদ পরিবারকে পেনশন দেওয়ার ব্যবস্থা করবে।’

- Advertisement -

মমতার কথায়, ‘নন্দীগ্রামে সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল করা হয়েছে। চণ্ডীপুর ও নন্দকুমার ব্লকে ৭০ হাজার পরিবারে বাড়ি বাড়ি জলের কল পৌঁছোতে দেড় হাজার কোটি টাকার প্রকল্প। নন্দীগ্রামের সাধারণ মানুষ প্রচুর কাজ পাবেন।’ এদিন নন্দীগ্রাম আন্দোলনের সময় নিখোঁজদের হাতে সরকারি অর্থ সাহায্য তুলে দেন মুখ্যমন্ত্রী। ১০ নিখোঁজের পরিবারকে ৪ লক্ষ টাকা করে দেওয়া হয়েছে।

এদিন সভা থেকে বিজেপির বিরুদ্ধে তীব্র সুর চড়িয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, ‘সব হোয়াটস অ্যা‌প বিশ্বাস করবেন না। বিজেপি ভুয়ো খবর ছড়ায়।’ বেঁচে থাকতে বাংলাকে বিক্রি করতে দেব না বলেও হুঁশিয়ারি দেন তিনি।

দল বদলুদের নিয়ে মমতার বক্তব্য, ‘তোমরা তৃণমূল কংগ্রেসের জন্মদিনে ছিলে না। তৃণমূলের সঙ্গে লড়াই করা এত সহজ নয়। কেউ কেউ ‘ইধার-উধার’ করছে, অত চিন্তা করার কারণ নেই।’ কেন্দ্রীয় কৃষি আইন নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘তিনটি কৃষি আইন প্রত্যাহার করতে হবে। দরকার হলে আবার কৃষক আন্দোলনে আমরা অংশ নেব। সারা ভারতের কৃষক আন্দোলনকে আমরা সমর্থন করছি।’