মমতা দিদি দরিদ্র মানুষের অধিকার নিয়ে রাজনীতি করা বন্ধ করুন: অমিত শা

635

কলকাতা: পশ্চিমবঙ্গে ক্ষমতা দখল করতে মরিয়া বিজেপি। তাই লকডাউনে সভা-সমাবেশ বন্ধ থাকায় মঙ্গলবার ভার্চুয়াল জনসভার আয়োজন করল বিজেপি। যে সভার মুখ্য বক্তা কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তথা সর্বভারতীয় বিজেপির প্রাক্তন সভাপতি অমিত শা। বঙ্গ বিজেপির ঘোষিত পরিকল্পনা মতোই এদিন অমিত শা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল সুপ্রিমোকে আকরমণ করেন। একই সঙ্গে নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বে কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের একের পর এক কাজের প্রশংসা করেন।

ভার্চুয়াল সভায় অমিত শা যা বললেন,

- Advertisement -
  • মোদি জী ২০১৪ সালে দেশের প্রধানমন্ত্রী হয়েছিলেন ও ২০১৮ সালে আবার সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়েছিলেন। মোদি সরকারের দ্বিতীয় মেয়াদের এক বছর পূর্ণ হয়েছে। সোনার বাংলা গড়তে মোদিজী’র হাত শক্ত করুন।

  • যদি শান্ত, উন্নত বাংলা গঠন করতে চান তা হলে মোদিজীকে সুযোগ দিন।
  • আপনারা সিপিএম ও তৃণমূলকে দেখেছেন, এ বার বিজেপিকে সুযোগ দিন।

  • কেন্দ্রের দেওয়া অর্থ তোলাবাজি ও সিন্ডিকেটের ভেট হিসাবে চলে গিয়েছে।

  • দেশের যে যে রাজ্যে বিজেপি ক্ষমতায় এসেছে সেখানে বিকাশের রাস্তা চওড়া হয়েছে।

  • তৃণমূল কংগ্রেসকে সরিয়ে সোনার বাংলা গড়তে হবে।

  • বাংলাকে এগিয়ে নিয়ে যেতে শাসন ক্ষমতার বদল চাই।

  • চরম সঙ্কটের সময়েও এখানে হিংসা ঘটছে।

  • করোনা ও আমপানের সময়েও দুর্নীতি করেছে তৃণমূল।

  • মমতা দিদি, দরিদ্র মানুষের অধিকার নিয়ে রাজনীতি করা বন্ধ করুন। আপনি অন্যান্য অনেক বিষয় নিয়ে রাজনীতি করতে পারেন। তবে ‘স্বাস্থ্য’ নয়।
  • বাংলার দরিদ্র জনগণের কি নিখরচায় ও উন্নতমানের চিকিৎসা পাওয়ার অধিকার নেই? তাহলে কেন আপনি এখানে আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্পের অনুমতি দেবেন না?
  • বাংলায় প্রায় ৮,০০০ কোটি টাকার পিডিএসের মাধ্যমে ৩.৮৪ লক্ষ মেট্রিক টন খাদ্যশস্য সরবরাহ করা হয়েছে। এটি আমরা রাজ্য সরকারকে যে সহায়তা দিয়েছি তারও ওপরে।
  • আমি আবার মমতা দিদিকে অনুরোধ করছি – আপনি যদি আমাদের কৃষকদের তালিকা পাঠান, তবে আমরা তাদের ৬,০০০ টাকা পাঠাবো। কেন আপনি আপনার কৃষকদের সরকারের কাছ থেকে সহায়তা পেতে বাধা দিচ্ছেন?
  • মোদি সরকারের ছয় বছর ভারতকে প্রতিটি পদক্ষেপে এগিয়ে নিয়ে গেছে। এটি সারা দেশে সমস্যা সমাধানে ব্যবহার করা হয়েছে। ছয় বছরে, আমরা নতুন ভারত তৈরিতে এগিয়ে গিয়েছি।
  • আজ, আর্টিকেল ৩৭০ বাতিল করা হয়েছে। জম্মু-কাশ্মীরকে দেশের অন্যান্য অংশের সাথে মূলধারায় যুক্ত করা হয়েছে।
  • কোভিড – ১৯ এবং আম পান’র কারণে যারা প্রাণ হারিয়েছেন তাঁদের প্রতি আমার শ্রদ্ধাঞ্জলি। আমি বাংলার জনগণকে বলতে চাই যে, বিজেপি সারা দেশ থেকে ৩০৩ টি আসন পেয়েছে। তবে আমার মতো একজন কর্মীর পক্ষে বাংলার ১৮ টি আসন সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ।
  • মমতা দিদি সিএএ-এর বিরোধিতা কেন করছেন তা ওনার পরিষ্কার হওয়া দরকার। নমশুদ্র এবং অন্যান্য অন্যান্য সম্প্রদায় যদি দেশে শ্রদ্ধার সঙ্গে বসবাস করে তবে আপনার সমস্যা কী? বাংলার মানুষও আপনাকে এই প্রশ্নটি জিজ্ঞাসা করছে। আপনাকে উত্তর দিতে হবে।
  • আমাদের দলের জন্য এটি গর্বের বিষয় যে, আমাদের দলের প্রথম সভাপতি ডাঃ শ্যামাপ্রসাদ মুখার্জী পশ্চিমবঙ্গ থেকে ছিলেন এবং দেশের একতার জন্য নিজের প্রাণ বিসর্জন দিয়েছিলেন।
  • মমতা দিদি আপনি আমাদের হিসাব চান, আমি তো হিসাব নিয়ে এসেছি। আপনিও কাল সাংবাদিক সম্মেলন করে নিজেদের সরকারের হিসাব দিন। কোনও বোমা বিস্ফোরণ এবং বন্ধ কল কারখানার সংখ্যা দেবেন না মমতা দিদি।
  • আপনার দেওয়া ‘করোনা এক্সপ্রেস’ নামটি, মমতা দিদি আপনার প্রস্থান পথে পরিণত হবে। আপনি অভিবাসী শ্রমিকদের ক্ষতস্থানে নুন ছেটানোর কাজ করেছেন।তাঁরা এটি ভুলে যাবেন না।
  • ইউপি ১৭০০ ট্রেন পেয়েছে, বিহার ১৫০০। কিন্তু আমি আশ্চর্য হয়ে গেলাম বাংলার জন্য ট্রেনের নামকরণ মমতা দিদি যখন ‘করোনা এক্সপ্রেস’ রাখলেন। আমরা এর নাম রেখেছিলাম ‘শ্রমিক স্পেশাল’ ট্রেন।
  • আমি বাংলার জনগণকে বলতে চাই যে, বিজেপি সারা দেশ থেকে ৩০৩ টি আসন পেয়েছে। তবে আমার মতো একজন কর্মীর পক্ষে বাংলার ১৮ টি আসন সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ।জনসংযোগ’র ইতিহাস যখন লেখা হবে, তখন নাড্ডা জি‘র নেতৃত্বে বিজেপি দ্বারা এই ভার্চুয়াল সমাবেশগুলিকে একটি বিশেষ অধ্যায় হিসাবে লেখা হবে।
  • জনসংযোগ’র ইতিহাস যখন লেখা হবে, তখন নাড্ডা জি‘র নেতৃত্বে বিজেপি দ্বারা এই ভার্চুয়াল সমাবেশগুলিকে একটি বিশেষ অধ্যায় হিসাবে লেখা হবে।                                                  অন্যদিকে, আজকের সভার আগে রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেছেন, “অমিতজির সভা থেকেই বাংলায় রাজনৈতিক পালাবদলের সূচনা হয়ে যাবে”। তাঁর কথায়, “বিজেপিতে ভার্চুয়াল সভা এই প্রথম হচ্ছে এবং এ ব্যাপারে বিশ্বে রেকর্ড স্থাপন করবে দল।”