কোচবিহার, ৮ জুলাইঃ ভিজিটিং আওয়ারের শেষে হাসপাতাল ক্যাম্পাসে ঢোকার চেষ্টা করায় এক ব্যক্তিকে মারধরের অভিযোগ উঠল পুলিশ ও সিভিক ভলান্টিয়ারের বিরুদ্ধে। সোমবার রাতের এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা ছড়ায় কোচবিহার সরকারি মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে। আক্রান্ত প্রবীর দে সরকার জানান, হাসপাতালে চিকিত্সাধীন এক আত্মীয়কে এদিন দেখতে যান তিনি। অভিযোগ, ভিজিটিং আওয়ারের শেষে প্রবীরবাবু ভেতরে ঢুকতে চাইলে বাধা দেন নিরাপত্তারক্ষীরা। এতে দুপক্ষের মধ্যে শুরু হয় বচসা। এরপরই হাসপাতালে থাকা পুলিশ ও সিভিক ভলান্টিয়াররা প্রবীরবাবুকে বেধড়ক মারধর করে বলে অভিযোগ।

প্রবীরবাবু বলেন, ‘আমি ভিজিটিং কার্ড নিয়ে এসেছিলাম। বিকেলে ভিজিটিং আওয়ারে রোগীর সঙ্গে দেখাও করেছি। কিন্তু তারপরেও আয়া ঠিক করার জন্য হাসপাতালের ভেতরে যাওয়ার প্রয়োজন ছিল। তাই সন্ধ্যার পর সেখানে যেতে চাইলে পুলিশ ও সিভিক ভলান্টিয়াররা আমাকে মারধর করে।’ যদিও পুলিশের তরফে এই অভিযোগ অস্বীকার করা হয়েছে। এমএসভিপি ড. রাজীব প্রসাদকে একাধিকবার ফোন করা হলেও যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।