স্ত্রীর বিরহ সইতে না পেরে জলে ঝাঁপ দিলেন যুবক

218

রাজগঞ্জ: স্ত্রীর বিরহ সহ্য করতে না পেরে তিস্তা সেচনালায় ঝাঁপ দিলেন যুবক। অবসাদেই ওই যুবক জলে ঝাঁপ দেন বলে জানা গিয়েছে। সোমবার বিকেলের ফুলবাড়ির অদূরে লক্ষ্মীজোত এলাকার ঘটনা। অশোক পণ্ডিত নামে মায়ের সামনেই জলে ঝাঁপ দেন। যদিও তাঁর খোঁজ মেলেনি।

জানা গিয়েছে, যুবকের বাড়ি শিলিগুড়ির ইস্টার্ন বাইপাসে বুড়াবুড়ি মন্দির এলাকায়। তাঁর খোঁজে তল্লাশি শুরু হয়েছে। ওই যুবকের স্ত্রী কয়েকদিন আগেই বাপের বাড়িতে গিয়েছেন। কিন্তু স্ত্রীর বিরহ সহ্য করতে পারেননি অশোক। গতকাল তিনি বাড়ি থেকে বেরিয়ে পড়েন। ছেলে কিছু একটা করে ফেলতে পারেন বুঝে তাঁর মা পিছু নেন। দুজনেই টোটোতে করে ফুলবাড়ির লক্ষ্মীজোত এলাকায় সেচনালার পাড়ে এসে বসেন। অশোকের মা কল্পনা পণ্ডিত জানান, সেচনালার পাড়ে বসে মা ও ছেলে গল্প করছিলেন। সেসময় ছেলে হঠাৎই সেচনালায় ঝাঁপ দেন। কল্পনাদেবীর চিৎকারে আশেপাশের লোক ছুটে এলেও ততক্ষণে জলে তলিয়ে গিয়েছেন অশোক। এদিন নিউ জলপাইগুড়ি থানার পুলিশ স্থানীয়দের সহযোগিতায় তল্লাশি চালালেও তাঁর খোঁজ মেলেনি। যদিও শেষে বিপর্যয় মোকাবিলা দলের সদস্যরা বোট নিয়ে তল্লাশি শুরু করেছেন।

- Advertisement -