স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার আর্থিক সাহায্যে নতুন জীবনে পদার্পণ মানসীর

63
প্রতীকী ছবি

করণদিঘি: অভাবী, দরিদ্র পরিবারের পাশে দাঁড়াল এক বেসরকারি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা। সামান্য কিছু আর্থিক সাহায্য দিয়ে কলকাতায় বিয়ের ব্যবস্থা করতে চলেছেন এক দরিদ্র তরুণীর। করণদিঘির ওই স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার তরফে তাঁর বিয়ের খরচা বাবদ দশ হাজার টাকা তুলে দেওয়া হয়েছে দরিদ্র পরিবারের হাতে।

দুঃস্থ ওই তরুণীর নাম মানসী গুপ্তা। করণদিঘির পিছলা গ্রামের বাসিন্দা ছিলেন তিনি। করণদিঘি থেকে কলকাতার ব্যান্ডেলে বিয়ের ব্যবস্থা করা হয়েছে তাঁর। মানসীর বাবা সন্তোষ গুপ্তা প্রয়াত হয়েছেন আগেই, মা থাকে বিহারে তাঁর বাপের বাড়িতে। করণদিঘির পিছলা গ্রামের বাসিন্দা দাদু রামমোহন গুপ্তা ভ্যান চালিয়ে, পাপড় ভাজা বিক্রি করে কোনওরকম সংসার চালান। সেই দাদুর বাড়িতেই অভাবের মধ্যে বড় হয়েছেন তরুণী। তিনি করণদিঘি হাইস্কুলে পড়াশোনা করলেও মাধ্যমিকের গন্ডি পেরোতে পারেননি।

- Advertisement -

স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার আর্থিক সাহায্যে নতুন জীবনে পদার্পণ মানসীর| Uttarbanga Sambad | Latest Bengali News | বাংলা সংবাদ, বাংলা খবর | Live Breaking News North Bengal | COVID-19 Latest Report From Northbengal West Bengal India

দাদু রামমোহন গুপ্তা জানিয়েছেন, কলকাতার ব্যান্ডেলে বছর ২০’র মানসীর বিয়ে ঠিক করেছেন। বুধবার অর্থাৎ আজ কলকাতায় গিয়ে পাত্রের বাড়িতে উঠবেন এবং কোনও মন্দিরে বিয়ে সুসম্পন্ন করাতে চান তাঁরা।

স্থানীয় বাসিন্দা কৈলাশ গুপ্তা জানান, মানসীদের আর্থিক অবস্থা এতটাই খারাপ যে সামান্য বেড়ার ঘরের উপর ত্রিপল টাঙিয়ে থাকেন তাঁরা। যদিও পঞ্চায়েত, ব্লক বা অন্য কোথাও সাহায্যের জন্য আবেদন করেননি পরিবারের কেউই। নিকট আত্মীয়স্বজন যে যতটা পেরেছেন অর্থ সাহায্য করছেন।