টেনহরি গ্রামে এবছরও হচ্ছে না মনসা মেলা

209

রায়গঞ্জ: রায়গঞ্জের টেনহরি গ্রামে অধিকাংশ পূর্ববঙ্গের মানুষের বাস। এই গ্রামে মনসা পুজোর প্রচলন যথেষ্ট। দীর্ঘ ৫০ বছরের বেশি সময় ধরে মনসা পুজোকে কেন্দ্র করে মেলা অনুষ্ঠিত হয়। কিন্ত করোনা পরিস্থিতিতে গত দুই বছর ধরে মেলা বন্ধ রেখেছেন উদ্যোক্তারা। প্রতিটি ঘরে মনসা পুজো হলেও মেলা হবে না। সর্বগ্রাসী করোনার দাপট থাবা বসিয়েছে ঐতিহ্যের শিকড়ে।

জঙ্গল অধ্যুষিত গ্রামবাংলা বিশেষত পূর্ববঙ্গে সাপের উপদ্রব ছিল খুব বেশি। পশ্চিমে আবার চাষের কাজ করতে গিয়ে সাপের ভয় ছিল৷ মনসা সাপের দেবী। তিনি শিবের কন্যা। নিজের পুজো প্রচলনে চাঁদ সদাগরকে নির্বংশ করেন। শেষে লক্ষ্মীন্দরের বাসরে কালনাগিনীর প্রবেশ। বেহুলার ভেলা ভাসিয়ে স্বামীকে বাঁচিয়ে আনা। অবশেষে বাঁ হাতে মনসাকে পুজো দেন চাঁদ। সেই থেকে বাংলার ঘরে ঘরে পুজিতা মনসাদেবী। সেই ঐতিহ্য মেনে টেনহরি গ্রামের বাসিন্দারা প্রতি বছর মনসা পুজোয় মেতে ওঠেন। মেলা উদ্যোক্তা বিশ্বজিৎ দাস জানান, প্রতি বছর পুজোর পরদিন মেলা হয় এখানে। কিন্ত করোনা মহামারির জন্য দু’বছর ধরে মেলা বন্ধ।

- Advertisement -