ঝুঁকি এড়াতে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে নেই শুটাররা

টোকিও : মাঠজুড়ে ছড়িয়ে রয়েছেন কয়েকশো শিল্পী। রংবেরংয়ের পোশাক পরে নাচ বা একগুচ্ছ গিটার-ড্রাম-বেহালার সুর। শুক্রবার টোকিও অলিম্পিকের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এমন কোনও দৃশ্যই দেখা যাবে না। এমনকি ঝুঁকি এড়াতে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সব শুটারকে না পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভারতীয় শুটিং দল।

এতদিন অলিম্পিকের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মার্চ পাস্টে প্রতিনিধি দলের সব সদস্যই উপস্থিত থেকেছে। কিন্তু এবার অন্য দৃশ্য দেখা যাবে। ২৪ জুলাই প্রথম দিন থেকেই ইভেন্ট শুরু হচ্ছে ভারতীয় দলের বহু সদস্যের। তাই তাঁদের নিয়ে কোনও ঝুঁকি নিতে নারাজ দল। এরমধ্যে শুটিং টিমের সিদ্ধান্তের কথা প্রকাশ করেছেন সুমা শিরুর। তিনি জানিয়েছেন, বেশ কয়েকজন শুটার ইভেন্ট মন দেওয়ার জন্য উদ্বোধনে না যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। অন্যরা অবশ্য যাবেন বলেই ঠিক হয়েছে। কারণ এ এক অনন্য অভিজ্ঞতা।

- Advertisement -

শনিবার চার শুটার অপূর্ভি চান্ডেলা, এলাভেনিল ভালারিভন, সৌরভ চৌধুরি এবং অভিষেক ভার্মার ইভেন্ট শুরু। ফলে তাঁরা উদ্বোধনে যাবেন না বলেই মনে করা হচ্ছে। শুটিং দলের পাশাপাশি অন্যান্য খেলার ক্ষেত্রেও একই সিদ্ধান্ত হওয়ার সম্ভাবনা উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। তবে এখনও সরকারি ভাবে কোনও ঘোষণা করা হয়নি। ওইদিন সব অ্যাথলিট না পাঠানোর পথে হাঁটছে অন্যরাও। যেমন গ্রেট ব্রিটেনের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, তাদের মাত্র ৩০ জন অ্যাথলিট মার্চ পাস্টে অংশ নেবেন। যা তাদের মোট অ্যাথলিটের ১০ শতাংশেরও কম।

বুধবার উদ্বোধনী অনুষ্ঠান নিয়ে আলোচনায় বসেছিলেন সব প্রতিযোগী দেশের শেফ দ্য মিশনরা। সেখানে সিদ্ধান্ত হয়েছে, মার্চ পাস্টে প্রতি দেশের ৬ জন করে অফিশিয়াল উপস্থিত থাকতে পারবেন। অফিশিয়ালদের মধ্যে মূলত কোচ ও সাপোর্ট স্টাফদের ধরা হয়। ক্রীড়াকর্তা অর্থাৎ ডেলিগেটদের উপস্থিতি নিয়ে অবশ্য কোনও বিধিনিষেধ নেই।