করোনার স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষা করে ভিড় আদিনায়

203

গাজোল, ১ জানুয়ারিঃ করোনার সমস্ত সর্তকতা উপেক্ষা করে ইংরেজি নববর্ষের প্রথমদিন গৌড়বঙ্গের বিভিন্ন এলাকা থেকে হাজার হাজার মানুষ আদিনা ডিয়ার পার্ক এবং আদিনা মসজিদ এলাকায় হাজির হলেন। মাস্ক পরে উৎসবে সামিল হওয়ার জন্য প্রশাসনিক সচেতনতা বার্তা উপেক্ষা করেই সাধারণ মানুষ ভিড় করেছেন বলে অভিযোগ। এদিন যারা আনন্দ উপভোগ করতে এসেছিলেন, তাঁদের প্রায় কারও মুখেই মাস্ক ছিল না। ঘটনাকে কেন্দ্র করে আগামীদিনে ভাইরাসের সংক্রমণ বাড়ায় আশঙ্কা রয়েছে বলে মত চিকিৎসকদের। বনদপ্তর এবং পুলিশের পক্ষ থেকে কড়া নজরদারির চালিয়ে এবারে আদিনা ডিয়ার পার্ক এবং সংলগ্ন এলাকায় কাউকে পিকনিক করতে দেওয়া হয়নি। সরকারি নিষেধাজ্ঞা না জেনে, কিছু মানুষ পিকনিক করতে এলেও, তাঁদেরকে ফিরিয়ে দেওয়া হয়েছে। বছরের প্রথমদিনে ভিড় নিয়ন্ত্রণ করতে এবং দুর্ঘটনা রুখতে আদিনা বাস স্ট্যান্ড সহ ডিয়ার পার্ক এবং আদিনা মসজিদ এলাকায় প্রচুর পরিমাণে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছিল।

গৌড়বঙ্গের অন্যতম পর্যটন এবং পিকনিক স্পট আদিনা ডিয়ার পার্ক, আদিনা মসজিদ সহ সংলগ্ন এলাকা। মোটামুটি ২৫ ডিসেম্বর থেকেই এই সমস্ত জায়গায় জোরকদমে পিকনিক চলে। এছাড়াও, এই সময় বিভিন্ন এলাকা থেকে হাজার হাজার পর্যটক ভিড় করেন। তবে বছরের প্রথম এবং শেষ দিন সব থেকে বেশি ভিড় হয়। বৃহস্পতিবার বছরের শেষ দিন করোনা প্রকোপের জেরে এবং পিকনিক বাতিল হয়ে যাওয়ায় আদিনা ছিল প্রায় শুনশান। অনেকেই ভেবেছিলেন বছরের প্রথমদিন এবারে হয়তো আদিনাতে তেমন ভিড় হবে না। কিন্তু, সমস্ত জল্পনার অবসান ঘটিয়ে এদিন সকাল থেকেই গৌড়বঙ্গের বিভিন্ন জেলা থেকে নানা ধরনের গাড়ি করে হাজার হাজার মানুষ সেখানে আসতে শুরু করেন। ভিড়ের চাপে ওই সমস্ত এলাকার রাস্তাগুলি প্রায় অবরুদ্ধ হয়ে পড়ে। তবে, এদিন যারা এসেছিলেন তাঁদের প্রায় কারও মুখেই মাস্ক ছিল না। ভিড় নিয়ন্ত্রণ করতে এদিন গাজোল থানার পুলিশের পক্ষ থেকে বাড়তি পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছিল। এদিন ঘুরতে আসা সকলেই জানিয়েছেন, প্রায় সারা বছর ধরে তাঁরা অবরুদ্ধ হয়েছিলেন। বাড়িতে থাকতে থাকতে হাঁপিয়ে উঠেছিলেন। প্রভাব পড়েছিল শিশুদের মনেও। তাই বছরের প্রথমদিন বাইরে বেরিয়ে, নতুন বছরকে স্বাগত জানাতে চলে এসেছেন। করোনা সংক্রান্ত স্বাস্থ্যবিধি না মানায় ভাইরাস সংক্রমণের শঙ্কা দেখা দিয়েছে।

- Advertisement -

বনদপ্তরের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, প্রশাসনের পক্ষ থেকে আদিনা ডিয়ার পার্ক সংলগ্ন এলাকায় পিকনিক কঠোরভাবে নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এবিষয়ে বনদপ্তরের পক্ষ থেকেও, আলাদাভাবে নজরদারি চালানো হয়েছে। যদিও, এদিন বেশকিছু পিকনিক পার্টি এই নিষেধাজ্ঞার কথা জানতে না পেরে, পিকনিক স্পটে চলে এসেছিলেন। কিন্তু, কাউকে পিকনিক করতে দেওয়া হয়নি। সকলকেই ফেরত পাঠানো হয়েছে। গাজোল থানার পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, বছরের প্রথমদিন যাতে সবাই খুব ভালোভাবে উপভোগ করতে পারেন, সে জন্য সমস্ত রকম ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছিল। অন্যান্য দিনের থেকে এদিন সাধারণ মানুষের মানুষের ভিড় বেশি ছিল। ব্যস্ততম জাতীয় সড়কে দুর্ঘটনা এড়াতে প্রচুর পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছিল। এছাড়াও, আদিনা ডিয়ার পার্ক এবং আদিনা মসজিদ এলাকাতেও বাড়তি পুলিশবাহিনী মোতায়েন করা হয়েছিল। একইসঙ্গে সকলেই যাতে করোনা সম্পর্কিত সমস্ত বিধি মেনে চলেন, সে বিষয়েও সচেতনতা প্রচার চালানো হয়েছে।