পুলিশের উদ্যোগে মেয়ের হারিয়ে যাওয়া নথি খুঁজে পেলেন মা

288

মালবাজার ১৯ জুলাই: ভাইয়ের বাড়িতে ঘুরতে এসে ভুলে টোটোতেই মেয়ের মার্কশিট, শংসাপত্র ও চিকিত্সা সংক্রান্ত নথিপত্র ফেলে রেখে গিয়েছিলেন সরস্বতী ছেত্রী নামে এক মহিলা। দিশেহারা হয়ে টোটো চালকের খোঁজ করতে থাকেন তিনি। অবশেষে মাল থানার ট্রাফিক বিভাগের তত্পরতায় একদিন পরই মেয়ে যুক্তার খোয়া যাওয়া মার্কশিট সহ অন্যান্য শংসাপত্র ফিরে পেলেন সরস্বতীদেবী।

শিলিগুড়ির বাসিন্দা সরস্বতী ছেত্রী বৃহস্পতিবার মাল শহরে তাঁর ভাইয়ের বাড়িতে গিয়েছিলেন। টোটো করে ক্যালটেক্স মোড় থেকে পম্পা হল যাওয়ার পথে একাদশ শ্রেণির ছাত্রী মেয়ে যুক্তার মার্কশিট সহ অন্যান্য শংসাপত্র টোটোতেই ফেলে যান তিনি। পরে সরস্বতীদেবী মাল থানার ট্রাফিক বিভাগের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। ট্রাফিক ওসি ফজলুর হক মাল শহরের ই-রিকশা ইউনিয়নের কর্মকর্তা ও টোটোচালকদের সঙ্গে যোগাযোগ শুরু করেন। অবশেষে খোঁজ মেলে টোটো চালক মজিবুর রহমানের। তাঁর টোটোতেই নথিগুলি ফেলে রেখে গিয়েছিলেন সরস্বতীদেবী। ট্রাফিক বিভাগে এসে তিনি কাগজগুলি জমা দেন। এরপর ট্রাফিক বিভাগের ওসি ফজলুর হক এবং অন্যান্য আধিকারিকরা সরস্বতীদেবীকে ডেকে গুরুত্বপূর্ণ কাগজগুলি তুলে দেন। টোটো চালক মজিবুর রহমান বলেন, ‘আমি ওই মহিলাকে খুঁজে পাচ্ছিলাম না। কিন্তু কাগজগুলি যত্ন করে রেখেছিলাম’। এই বিষয়ে ট্রাফিক বিভাগের ওসি ফজলুর হক বলেন, আমাদের পক্ষে যা করণীয় আমরা তাই করেছি। এদিকে কাগজপত্র ফিরে পেয়ে খুশি সরস্বতী দেবীও।

- Advertisement -