স্থায়ীকরণ ও আপদকালীন সাহায্য চেয়ে গণইমেল অস্থায়ী শিক্ষকদের

334

মেখলিগঞ্জ: কাজের স্থায়ীকরণ ও আপদকালীন সাহায্য চেয়ে মুখ্যমন্ত্রী,  শিক্ষামন্ত্রী ও অর্থমন্ত্রীকে গণইমেল কর্মসূচির আয়োজন করল পার্ট টাইম টিচার্স ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন। বৃহস্পতিবার গোটা রাজ্যের সংগঠনের সদস্যরা এই ইমেল পাঠানোর কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করেন।

সংগঠনের তরফে জানা গিয়েছে, রাজ্যে দীর্ঘদিন সঠিক সময়ে এসএসসি পরীক্ষা না হওয়ার জন্য রাজ্যের বিভিন্ন সরকারি সাহায্য প্রাপ্ত বিদ্যালয়গুলিতে শিক্ষকের ঘাটতি দেখা দিয়েছে। এই ঘাটতি পূরণের জন্য বিদ্যালয়ের পরিচালন সমিতিগুলো বিভিন্ন বিদ্যালয়ে আংশিক সময়ের শিক্ষক নিয়োগ করে থাকেন। মূলত বাম আমল থেকেই বিদ্যালয়ে আংশিক সময়ের শিক্ষক নিয়োগ হয়ে আসছে। বিদ্যালয়ের এই আংশিক সময়ের শিক্ষকদের এক থেকে তিন হাজার টাকা বেতন দেওয়া হয় বিদ্যালয় ফান্ড থেকে। এই কোভিড পরিস্থিতিতে অনেক বিদ্যালয় এই সামান্য বেতনটুকুও দিচ্ছে না। ফলে সংসার চালাতে গিয়ে হিমশিম খেতে হচ্ছে এইসব শিক্ষক শিক্ষিকাদের। অথচ একজন স্থায়ী শিক্ষকের সমান ক্লাস করতে হয় এই শিক্ষক শিক্ষিকাদের। অথচ এই শিক্ষক শিক্ষিকাদের কাজের কোনও স্থায়ীত্ব নেই। উপরন্তু স্থায়ী শিক্ষক নিয়োগ করা হলেই এইসব আংশিক সময়ের শিক্ষক শিক্ষিকাদের বিদ্যালয় থেকে ছাড়িয়ে দেওয়া হয়।

- Advertisement -

সংগঠনের রাজ্য সভাপতি তথা পুরুলিয়া জেলার বাসিন্দা সমীরকুমার দেওঘরিয়া বলেন, ‘২০১৯ সাল থেকে আমরা নিয়মিত আন্দোলন ও আবেদন করে চলেছি। নবান্ন অভিযানে তৎকালীন শিক্ষা মন্ত্রী আমাদের স্মারকলিপি গ্রহণ করে ভোট পরবর্তী সময়ে আমাদের দাবি দেখার আশ্বাস দিয়েছিলেন। আমাদের সমস্যার সমাধান না হলে আগামীতে আমরা বৃহত্তর আন্দোলন ও কলকাতার রাজপথে স্থায়ী অবস্থান বিক্ষোভ করব।‘