অশোক চট্টোপাধ্যায়কে প্রার্থী করার কথা বলতেই, অনুব্রতর জনসভা থেকে বেরিয়ে গেলেন মহিলারা

854

রামপুরহাট, ১৬ জানুয়ারিঃ প্রার্থী হিসেবে সিউড়ির বিধায়ক অশোক চট্টোপাধ্যায়ের নাম বলতেই ক্ষিপ্ত হয়ে উঠলেন কিছু যুবক। এরইমধ্যে সভাস্থল ছেড়ে পালিয়ে গেলেন মহিলারা। যদিও অনুব্রতর সাফাই, “বেলা হয়ে যাওয়ায় ওঁরা চলে যাচ্ছে। ওঁদের যেতে দিন।” শনিবার বীরভূমের রামপুরহাট ২ নম্বর ব্লকের বিষ্ণুপুর হাইস্কুলের মাঠে তৃণমূল কংগ্রেসের জনসভা ছিল। সভায় দলের জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল ছাড়াও জেলা পরিষদের মেন্টর রানা সিংহ, বোলপুরের সাংসদ অসিত মাল, দলের জেলা সহ সভাপতি সৈয়দ সিরাজ জিম্মি, সাধারন সম্পাদক ত্রিদিব ভট্টাচার্য, ব্লক সভাপতি সুকুমার মুখোপাধ্যায় উপস্থিত ছিলেন। সভায় সব শেষে বক্তব্য রাখতে ওঠেন অনুব্রত মণ্ডল।

তিনি বলেন, আপনারা ভাবছেন হাঁসনে কে প্রার্থী হবে? কিন্তু, সেটা তো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঠিক করবে। আমি হলে আপনাদের আপত্তি আছে? সুকুমার হলে আপনাদের আপত্তি আছে? চিকিৎসক চট্টোপাধ্যায় হলে তো আপনাদের আপত্তি নাই! বর্তমানে সিউড়ির বিধায়ক অশোক চট্টোপাধ্যায়ের নাম বলতেই মঞ্চের ডান দিকে বসে থাকা কিছু যুবক উঠে দাঁড়িয়ে প্রতিবাদ শুরু করেন। তাঁরা বলতে শুরু করেন অশোক চট্টোপাধ্যায়কে প্রার্থী হিসাবে মানব না। সুকুমার মুখোপাধ্যায়কে প্রার্থী করতে হবে। বিক্ষোভ থামাতে অনুব্রত মণ্ডলকে বক্তব্য বন্ধ রেখে হস্তক্ষেপ করতে হয়। এরইমাঝে মহিলারা সভাস্থল ছেড়ে বেরিয়ে যেতে শুরু করেন। সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে অনুব্রত বলেন, “প্রার্থী ঠিক করবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর বিধানসভার ভোট মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে দেখেই ভোট দেবেন মানুষ।”

- Advertisement -

সাংসদ শতাব্দী রায় প্রসঙ্গে অধিকাংশ প্রশ্ন এড়িয়ে যান অনুব্রত মণ্ডল। কিন্তু, এই সমস্ত জনসভায় কেন শতাব্দীকে দেখা যাচ্ছে না? অনুব্রত বলেন, “ওর সংসদে থাকা খুব দরকার। সংসদটা খুব ভালো বোঝে। তবে, জনসভায় আসার জন্য কাউকে আমন্ত্রণ জানানো হয় না। অসিত মাল তো সব সভায় থাকছে। যাদের সময় হবে তাঁরা আসবেন। আমরা সবাই কর্মী। দু’পয়সার নেতার কোন দাম নেই। শতাব্দী অভিযোগ করেছিলেন, তাঁকে উন্নয়ন করতে দেওয়া হয় না। এই প্রসঙ্গে অনুব্রত বলেন, “ওঁনার সাংসদ তহবিলের টাকায় উনি নিজেই উন্নয়নের কাজ দেখাশোনা করেন। উন্নয়নে কেউ কাউকে বাধা দেয় না।” বিধানসভা নির্বাচনের প্রচারে কি শতাব্দীকে দেখা যাবে? প্রশ্নের উত্তরে অনুব্রত বলেছেন, “উনি চাইলে প্রচার করবেন। এটা তো ওঁনার লোকসভা কেন্দ্র। উনি আসতেই পারেন।”