বিতর্কিত গোলে এমবাপের শাপমুক্তি

মিলান : ২৯ জুন, বুদাপেস্ট। পেনাল্টি মিস করায় ইউরো থেকে ছিটকে গিয়েছিল ফ্রান্স।

১০ অক্টোবর, মিলান। গোল করে দেশকে উয়েফা নেশনস লিগ চ্যাম্পিয়ন করলেন।

- Advertisement -

তিনি কিলিয়ান এমবাপে। মেসি-রোনাল্ডো পরবর্তী ফুটবল দুনিয়ার সম্ভাব্য সবচেয়ে বড় তারকা। যাকে নিয়ে দড়ি টানাটানিতে ব্যস্ত প্যারিস সাঁ জাঁ, রিয়াল মাদ্রিদের মতো ক্লাব। কিন্তু দেশের জার্সিতে পারফরমেন্স ইস্যুতে গত সাড়ে তিন মাসে শ্রেষ্ঠত্বের তাল কিছুটা হলেও কাটছিল। রবিবার রাতে সান সিরোয় নতুন করে উদয় হল এমবাপে-সূর্যের। সঙ্গে বুড়ো হাড়ে ভেলকি করিম বেঞ্জেমার। তাতেই ছিটকে গেল লুইস এনরিকের স্পেনের তরুণ-ব্রিগেড। আর চওড়া হাসি মুখে নিয়ে নেশনস লিগের ট্রফি হাতে পোজ দিলেন ফ্রান্সের হেড স্যর দিদিয়ে দেশঁ।

সদ্য ইউরো চ্যাম্পিয়ন ইতালির টানা ৩৭ ম্যাচ অপরাজিত থাকার রেকর্ড ভেঙে ফাইনালে উঠেছিল স্পেন। অন্যদিকে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্স সেমিফাইনালে হারিয়েছে বেলজিয়ামের সোনালি প্রজন্মকে। ফলে তুল্যমূল্য লড়াইয়ে অপেক্ষায় ছিলেন ফুটবলপ্রেমীরা। আদতে হলও তাই। লাল বনাম নীলের লড়াই দেখে অভ্যস্ত সান সিরো সাক্ষী থাকল তারুণ্য বনাম অভিজ্ঞতার লড়াইয়ে। যদিও প্রথম অর্ধে প্রতিপক্ষকে মেপে নিতেই ব্যস্ত থাকল দুপক্ষ। দ্বিতীয়ার্ধে তুলনায় গতিশীল ফুটবল নজরে এল। ৬৪ মিনিটে কাউন্টার অ্যাটাক থেকে দলকে এগিয়ে দেন স্পেনের ফরোয়ার্ড মাইক ওয়ার্জাবল।

অথচ এই সময় এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ পেয়েছিল ফ্রান্স। লেফট উইং ব্যাক থিও হার্নান্দেজের শট পোস্টে লেগে ফিরলে আক্রমণে যায় স্পেন। অধিনায়ক সের্জিও বুসকেটসের লম্বা পাস ধরে একক দক্ষতায় গোল করে যান মাইক। তবে এগিয়ে গিয়ে স্বস্তিতে ছিল না স্পেন। কারণ এই ফ্রান্স শেষ ৮ ম্যাচের ৭টিতেই আগে গোল খেলেও হারেনি। সেই ধারা বজায় রেখে ২ মিনিটের মধ্যে গোল শোধ করলেন বেঞ্জেমা। বক্সের বাইরে থেকে নেওয়া শট দুই ডিফেন্ডারের মাঝ দিয়ে সোজা জালে জড়িয়ে যায়।

৮০ মিনিটে দেখা গেল এমবাপে-ম্যাজিক। থিওর লম্বা বল ধরে জয়সূচক গোলটি করলেন এই তারকা ফরোয়ার্ড। যদিও এই গোল নিয়ে সরব স্পেন। তাদের দাবি, সেসময় অফসাইড ছিলেন এমবাপে। ম্যাচ শেষে বুসকেটস বলেন, থিওর পাসের সময় কিলিয়ান অফসাইডে ছিল। আমরা রেফারিরে বিষয়টি নিয়ে প্রশ্ন করি। তিনি জানান, পাসটি এরিক গার্সিয়ার পায়ে লেগে কিলিয়ানের কাছে পৌঁছেছে। ফলে বল এরিকের স্পর্শ পাওয়ার পর খেলায় নতুন পর্যায় তৈরি হয়েছে। তাই এটি আর অফসাইড নয়। এই সিদ্ধান্ত আমাদের বোধগম্য হয়নি।