বাঁশের ব্যাটকে আপাতত খারিজ এমসিসির

লন্ডন : উইলো কাঠের পরিবর্তে বাঁশ দিয়ে তৈরি ব্যাট!

আর সেই ব্যাট নিয়ে বাইশ গজ কাঁপাচ্ছেন বিরাট কোহলি, জো রুটরা! ক্রিকেট ব্যাট নিয়ে এহেন যুগান্তকারী ভাবনা রীতিমতো হইচই ফেলে দিয়েছে। উদ্ভাবকদের দাবি কাঠের চেয়ে বাঁশের ব্যাট কার্যকর ও শক্তিশালী। শট খেলে অনেক বেশি উপভোগ করবেন ব্যাটসম্যানরা।

- Advertisement -

যদিও ব্যাট নিয়ে অভিনব এই উদ্যোগকে আপাতত ঠাণ্ডা ঘরে পাঠিয়ে দিল মেরিলিবোর্ন ক্রিকেট ক্লাব (এমসিসি)। ক্রিকেটের আইনপ্রণেতাদের মতে, বাঁশের ব্যাট অনৈতিক। তাই এখনই বাঁশের ব্যাটকে সবুজ সংকেত দেওয়া সম্ভব নয়। কাঠের বিকল্প হিসেবে বাঁশের ব্যাট ব্যবহার করতে হলে চলতি আইনে পরিবর্তন আনতে হবে।

কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ে দর্শিল শাহ ও বেন টিঙ্কলার-ডেভিসরাই বাঁশের ব্যাটের উদ্ভাবক। তাঁদের গবেষণা বলছে, কাশ্মীরি বা ইংল্যান্ডের উইলো কাঠের ব্যাটের চেয়ে বাঁশের ব্যাটে রানের গতি বাড়বে। বাঁশের ব্যাটে সুইট স্পট বেশি। ফলে ইয়র্কার বলেও চার, ছক্কা মারা সম্ভব। অন্যান্য শটের ক্ষেত্রেও অ্যাডভান্টেজ পাবেন ব্যাটসম্যান। এই ধরনের ব্যাটের দামও তুলনায় অনেক কম এবং উইলো কাঠের চেয়ে বাঁশ অনেক সহজলভ্য, বিশ্বের প্রায় সর্বত্র পাওয়া যায়।

এমসিসি যদিও মনে করে, বাঁশের ব্যাট ক্রিকেটের পরিপন্থী। এক প্রতিক্রিয়ায় তারা জানিয়েছে, বর্তমান নিয়মে (৫.৩.৩ ধারায়) ব্যাট কাঠেরই হতে হবে। আর বাঁশ এক ধরনের ঘাস। তাই এরকম কিছু দিয়ে ব্যাট তৈরি করাটা নিয়ম বিরুদ্ধ। কাঠের বিকল্প হিসেবে বাঁশের ব্যাটের ব্যাবহার চালু করতে হলে বর্তমান নিয়ম বদলানোর দরকার। তবে ছোটোদের জন্য বাঁশের ব্যাট ব্যবহার করা যেতেই পারে।