রায়গঞ্জ, ১০ মার্চঃ নির্বাচনের দিন ঘোষণার ঠিক পরেই জেলা প্রশাসনের অনুমতি না নিয়ে ভোট প্রচারে মিছিল নিয়ে রাস্তায় নেমে পড়লেন রায়গঞ্জ লোকসভা আসনের বামপ্রার্থী মহম্মদ সেলিম। আর সেই মিছিল করেই বিতর্কে জড়ালেন রায়গঞ্জের বিদায়ী সাংসদ। এদিন সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা নাগাদ রায়গঞ্জ শহরের শিলিগুড়ি মোড় থেকে বিদ্রোহী মোর পর্যন্ত বামপ্রার্থী মহম্মদ সেলিমের সমর্থনে মিছিল করে সিপিএম। মহম্মদ সেলিম ছাড়াও জেলা সিপিআইএম সম্পাদক অপূর্ব পাল সহ প্রায় শতাধিক কর্মী সমর্থককে এদিনের মিছিলে পা মেলাতে দেখা যায়।

এবিষয়ে, উত্তর দিনাজপুর জেলা শাসক তথা রিটার্নিং অফিসার অরবিন্দ কুমার মীনা জানান, নির্বাচন আচরণবিধি চালু হয়ে গিয়েছে, তার মধ্যে জেলা প্রশাসনের অনুমতি ছাড়া কিভাবে মিছিল করা হল সেই বিষয়ে খতিয়ে দেখা হচ্ছে। অন্যদিকে সিপিএমের জেলা সম্পাদক অপূর্ব পাল বলেন, “নির্বাচন নির্ঘণ্ট প্রকাশ হওয়ার আগেই আমাদের মিছিল শুরু হয়ে গিয়েছিল। ফলে সেই মিছিল আমাদের পক্ষে থামানো সম্ভব হয়নি। রায়গঞ্জ থানার আইসির কাছ থেকে শনিবার মৌখিক অনুমতি নেওয়া হয়েছে। সেই মত আমরা মিছিলে কোন মাইক ব্যবহার করিনি। মুখেই স্লোগান হয়েছে। নির্বাচন আচরণবিধি কিভাবে মানতে হয় বামফ্রন্ট তা ভালো করেই জানে।” কিন্তু জেলাশাসক এদিন বলেন, ‘আমার কাছ থেকে মিছিল করার অনুমতি নেওয়া হয়নি। সেই কারণেই সংশ্লিষ্ট দলের বিরুদ্ধে নির্বাচন আচরণবিধি লঙ্ঘনের জন্য উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

সংবাদদাতাঃ বিশ্বজিৎ সরকার