তৃণমূল সরকার গড়ার দিবাস্বপ্ন দেখছে, দাবি জন বারলার

148

চালসা, ২০ ফেব্রুয়ারিঃ তৃণমূল দিবাস্বপ্ন দেখছে। এবার রাজ্যে ক্ষমতায় আসবে বিজেপি। মানুষ এখন আর তৃণমূল কংগ্রেসের সঙ্গে নেই। দলে দলে মানুষ তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদান করছেন। শনিবার মেটেলি ব্লকের বড়োদিঘি চা বাগানে এক অনুষ্ঠানে এসে এমন ভাষাতেই তৃণমূল কংগ্রেসকে আক্রমণ করলেন আলিপুরদুয়ারের বিজেপি সাংসদ জন বারলা।

এদিন নাগড়াকাটায় তৃণমূলের সর্বভারতীয় যুব সভাপতি অভিষেক বন্দোপাধ্যায় জনসভা করেন। সেখানে অভিষেক আগামী বিধানসভা নির্বাচনে রাজ্যে ২৫০টিরও বেশি আসন পাওয়ার দাবি করেছেন।পাশাপাশি, বাংলা নিজের মেয়েকে চাইছে বলেও দাবি করেন। অভিষেকের সেই প্রশ্নের জবাবে এদিন জন বারলা বলেন, তৃণমূল দিবাস্বপ্ন দেখছে। মানুষ আর তৃণমূলকে চায় না। তৃণমূল ছেড়ে মানুষ বিজেপিতে যোগদান করছে। শনিবার মেটেলি ব্লকের সামসিং, ইনগু ও বড়োদিঘি চা বাগানে বহু মানুষ তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদান করেছেন বলেও জন বারলা দাবি করেন।

- Advertisement -

এদিন অভিষেক সদ্য দলত্যাগী নাগড়াকাটার বিধায়ক শুক্রা মুন্ডার নাম না করে বলেন, দল থেকে ক্ষতিকারক পোকামাকর বের হলে, দলের ভালই হবে। এদিন বড়োদিঘি চা বাগানে উপস্থিত বিধায়ক শুক্রা মুন্ডাকে ওই বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, তৃণমূল দলে কাটমানি, দুর্নীতিবাজ নেতা দিয়ে ভরে গিয়েছে। গত সাড়ে ৪ বছরে আমাকে কাজ করতে দেওয়া হয়নি। লোকসভায় দলের ফল খারাপ হওয়ার পর, তৃণমূল দল দুর্নীতিগ্রস্ত নেতাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিচ্ছিল। মানুস সব জানে। মানুষের কাজ করার জন্যই আমি বিজেপিতে যোগদান করেছি। এদিন জন বারলা সামসিং, ইনগু চা বাগানে সভা ও জনসংযোগ করেন।শেষে তিনি আসেন বড়োদিঘি চা বাগানে আসেন।

সেখানে বাগানের এতয়া লাইনে যোগদান সভা করা হয়। বাগানের তৃণমূলের শ্রমিক সংগঠনের নেতা গোবিন্দ তাঁতী সহ অনেকে এদিন বিজেপিতে যোগদান করেছেন। সভার বাগানের হাটখোলা বাজারে চায়ে পে চর্চায় অংশগ্রহণ করেন জন বারলা এবং শুক্রা মুন্ডা।সভায় উপস্থিত ছিলেন বিজেপির সমতল মণ্ডলের নেতা মজনু হক, মেহবুব আলম, মহম্মদ মুন্না, বিজেপি সমতল যুব মোর্চার সভাপতি বিবেক ছেত্রী, সন্তোষ হাতি সহ অন্যান্যরা।