পাপিয়ার খুনিদের ফাঁসির দাবিতে মাথাভাঙ্গা থানায় স্মারকলিপি

697

মাথাভাঙ্গা, ১৬ এপ্রিলঃ নিশিগঞ্জের অঙ্গনওয়াড়ি কর্মী পাপিয়া অধিকারীর খুনিদের ফাঁসির দাবিতে মঙ্গলবার মাথাভাঙ্গা থানায় স্মারকলিপি দিলেন তাঁর সহকর্মীরা। এদিন মাথাভাঙ্গা শহরে মিছিল করে তাঁরা থানার সামনে বিক্ষোভ দেখান।

কোচবিহার জেলার সেরা অঙ্গনওয়াড়ি কর্মী হিসেবে পুরস্কৃত পাপিয়া অধিকারী। অভিযোগ, শ্বশুরবাড়ির লোকজন নৃশংসভাবে তাঁকে হত্যা করে। অভিযোগের ভিত্তিতে স্বামী দেবাঞ্জন মালাকর ও ভাসুর দিপায়ন মালাকারকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এদিন বাকিদের খুঁজে বের করার এবং খুনিদের ফাঁসির দাবিতে আন্দোলন করেন তাঁর সহকর্মীরা। আন্দোলনে নেতৃত্ব দেন রুনু রায়, মমতা রায়, নীলরতন হালদার, পারুল রায় সহ আরও অনেকে। অঙ্গনওয়াড়ি কর্মী সংগঠনের সভানেত্রী রুনু রায় বলেন, আমাদের জেলার সেরা অঙ্গনওয়ারি কর্মী হিসবে পুরস্কৃত হয়েছিলেন নিশিগঞ্জের পাপিয়া অধিকারী। শ্বশুরবাড়ির লোকজন তাঁকে নৃশংসভাবে হত্যা করে। পুলিশ তাঁর স্বামী ও ভাসুরকে গ্রেফতার করেছে। আমরা বাকিদের ধরার ও পাপিয়ার খুনিদের ফাঁসির দাবিতে আন্দোলন করছি। আজ আমরা ফাঁসির দাবিতে মাথাভাঙ্গার থানার আইসিকে স্বারকলিপি দিলাম। যতদিন খুনিদের ফাঁসি না হবে ততদিন আমরা আন্দোলন চালিয়ে যাব।’ এই বিষয়ে মাথাভাঙ্গা থানার আইসি প্রদীপ সরকার বলেন, ‘স্মারকলিপি জমা পড়েছে। ঘটনার তদন্ত চলছে।’

- Advertisement -

সংবাদদাতাঃ মনোজ বর্মন