হাটের বেহাল দশায় ক্ষুব্ধ ব্যবসায়ী ও হাটুরেরা

334

বীরপাড়া: আলিপুরদুয়ার জেলার মাদারিহাট বীরপাড়া ব্লকে অবস্থিত শতাব্দী প্রাচীন শিশুবাড়ি হাটের বেহাল দশায় ক্ষুব্ধ ব্যবসায়ী ও হাটুরেরা। বেশ কিছু হাটশেড নিশ্চিহ্ন হয়ে গিয়েছে অনেক বছর আগেই। ফলে, হাটবারে ত্রিপল টাঙিয়ে কিংবা গাছতলায় দোকান বসাতে হয় অনেক ব্যবসায়ীকেই।

এছাড়া যে হাটশেডগুলি এখনও পর্যন্ত দাঁড়িয়ে রয়েছে সেগুলির টিনের চালে তৈরি হয়েছে অজস্র ফুটো। ফলে বৃষ্টি শুরু হতেই জলে ভিজতে হয় ক্রেতা ও বিক্রেতাদের। মাছবাজারের শেড ভেঙে গিয়েছে বহুদিন আগেই। এছাড়া মাছবাজারে জমা আবর্জনা এলাকায় দূষণের অন্যতম কারণ বলে অভিযোগ স্থানীয়দের।

- Advertisement -

হাটে নেই উপযুক্ত নিকাশি ব্যবস্থা। ফলে বৃষ্টি হলেই জল জমে হাটে। ডাম্পিং গ্রাউন্ড না থাকায় হাটেই আবর্জনার স্তূপ জমে থাকে। ব্রিটিশ জমানায় স্থাপিত হয়েছিল শিশুবাড়িহাট। এখন সপ্তাহে দু’দিন হাট বসে শিশুবাড়িতে। এর মধ্যে বৃহস্পতিবার বড় হাট বসে। ধূপগুড়ি, ফালাকাটা, জটেশ্বর, বীরপাড়া, মাদারিহাট থেকে ব্যবসায়ীরা পণ্য নিয়ে যান‌।

আশেপাশের গ্রামগুলির বাসিন্দাদের পাশাপাশি মুজনাই ও গোপালপুর চা বাগানের শ্রমিকরা ও ফালাকাটা ব্লকের একাংশের বাসিন্দারা শিশুবাড়িহাটের ওপর নির্ভরশীল। তবে, হাটের পরিকাঠামো নিয়ে ক্ষোভ রয়েছে অনেকের মধ্যেই। অবশ্য শিশুবাড়ি হাটের হাল ফেরাতে দ্রুত পদক্ষেপ করা হবে বলে আশ্বাস দিয়েছে আলিপুরদুয়ার জেলা পরিষদ ও মাদারিহাট বীরপাড়া পঞ্চায়েত সমিতি।