প্যারিসে ভাড়া বাড়িতে মেসি পরিবার

প্যারিস : প্যারিসে আসার পর মাস দেড়েক কেটে গিয়েছে। এতদিন পরিবার নিয়ে হোটেলেই কাটিয়েছেন। কিন্তু এভাবে আর কতদিন? তাই এবার ফ্রান্সের রাজধানীতে বাড়ি ভাড়া নিতে চলেছেন লিওলেন মেসি।

নতুন ক্লাবে যোগ দেওয়ার পর থেকে স্ত্রী আন্তোনেল্লা এবং তিন সন্তান থিয়াগো, চিরো ও মাতেওকে নিয়ে প্যারিসের লে রয়্যাল মনসু হোটেলে রয়েছেন আর্জন্টাইন মহাতারকা। ফ্রান্সের বিখ্যাত এই হোটেলের এক রাতের ভাড়া প্রায় ১৭ হাজার ইউরো। অবশ্য এই অর্থ মেটানোর দায়িত্ব প্যারিস সাঁ জাঁ কর্তৃপক্ষই নিয়েছে। তবে এভাবে আর থাকতে রাজি নন মেসিরা। তাই প্যারিসের পশ্চিমাংশে নিউয়ি-সুর-সেইন এলাকায় একটি বাড়ি ভাড়া নেওয়ার পরিকল্পনা করা হয়েছে। এজন্য মাসে ২০ হাজার ইউরো খরচ হবে।

- Advertisement -

প্যারিসের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ এই অঞ্চলে বিভিন্ন দেশের দূতাবাস ও কিছু প্রতিষ্ঠানের সদর দপ্তর অবস্থতি। ফলে নিরাপত্তাও বেশ আটোঁসাটোঁ। এই এলাকা থেকে পিএসজির মাঠ পার্ক দ্য প্রিন্সেসে যাতায়াতও সুবিধাজনক। পাশাপাশি মেসির সন্তানদের জন্য ভালো স্কুলও আছে সেখানে। স্বদেশী সতীর্থ অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া ও লিয়ান্দ্রো পারদেসও এই এলাকার বাসিন্দা। তবে প্রিয় সতীর্থ নেইমারকে প্রতিবেশী হিসেবে পাচ্ছেন না মেসি। এই ব্রাজিলিয়ান মহাতারকা শহরের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের ভেলিনেসের বাসিন্দা।

অন্যদিকে, শনিবার রাতে মন্টপিলারের বিরুদ্ধে ২-০ গোলে জিতেছে প্যারিস। তবে ম্যাচের মাঝে ইদ্রিশ গুয়েয়ার সঙ্গে কিলিয়ান এমবাপের কথোপকথন ধরা পড়েছে ক্যামেরা। সেখানে নেইমারকে নিয়ে নিজের অসন্তোষের কথা সরাসরিই বলেছেন তিনি। তাঁর কথায়, দেখো নেইমার আমাকে পাস দিচ্ছে না। এই ঘটনার ঠিক আগে নেইমারের পাস থেকে গোল করেন ড্রেক্সলার। ফলে নিজে গোল করার সুযোগ না পেয়ে এমবাপে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন বলেই মনে করা হচ্ছে।