অক্ষরের ভয়ে ভরাডুবি, সুন্দরের প্রশংসায় ভন

লন্ডন : রবি শাস্ত্রী স্বযং তার মধ্যে ব্যাটিংয়ে ভবিষ্যৎ তারকার ইঙ্গিত পাচ্ছেন। চাইছেন রাজ্য দলের হয়ে ঘরোয়া ক্রিকেটে চার নম্বরে ব্যাটিং করুক।

সেই ওয়াশিংটন সুন্দরকে নিয়ে উচ্ছ্বসিত মাইকেল ভনও। জেমস অ্যান্ডারসনের বিরুদ্ধে সুন্দরের ব্যাকফুট-পাঞ্চ শটে মুগ্ধ প্রাক্তন ইংল্যান্ড অধিনায়ক। দাবি, সুন্দরের মতো এরকম শট নিতে পারলে, গর্বিত হতেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ও!

- Advertisement -

ঋষভ পন্থ, অক্ষর প্যাটেল, রবিচন্দ্রন অশ্বীন- ম্যাচের মূল কারিগর। অবশ্য সুন্দরের অপরাজিত ৯৬ রানের ইনিংসকেও অবহেলা করা মুশকিল। একটি ভিডিও ইনটারভিউতে মাইকেল ভন বলেন, আট নম্বরে ব্যাটিংয়ে নিরিখে দুর্দান্ত সুন্দর। শেষদিনে জিমি অ্যান্ডারসনের বিরুদ্ধে এক্সট্রা কভারের মধ্যে দিয়ে নেওয়া ব্যাকফুট পাঞ্চের কথা বলব। ওই শটটা নিতে পারলে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ও খুশি হত।

অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ব্রিসবেনের ঐতিহাসিক টেস্টে অভিষেক। আট নম্বরে তাঁর ব্যাটিং ভারতকে ভরসা জুগিয়েছিল। ধারাবাহিকতা বজায় ইংল্যান্ড সিরিজেও। ভনের মতে আট নয়, প্রথম ছয়ে ব্যাটিং করা উচিত সুন্দরের। তাঁর যুক্তি, ওকে আট নম্বরে খেলানো হচ্ছে। ফলে লম্বা সময় ব্যাটিংয়ে সুযোগ কম। ও যে ধরনের ব্যাটসম্যান, তাতে টপ-সিক্সে রাখা উচিত। তাহলে, ভারতের সামনে দুর্দান্ত একটা বিকল্প তৈরি হবে। ওর অফস্পিনটা তো রয়েছে।

ক্রিকেট কেরিয়ারের প্রথম দিকে ওপেন করেছেন। রাজ্য দল তামিলনাড়ুর সতীর্থ রবিচন্দ্রন অশ্বীনের মুখে সুন্দরের ব্যাটিং প্রশংসা, মানসিকতা শোনা গিয়েছিল চতুর্থ ম্যাচের পর। ভনেরও দাবি, ব্যাটসম্যান হিসেবে সফল হওয়ার সমস্ত গুণ সুন্দরের কাছে রয়েছে, টেকনিক্যালি সুন্দর অত্যন্ত শক্তিশালী। সোজা ব্যাটে খেলে। দ্রুত বলের লেংথ বুঝে নিতে পারে। ফ্রন্টফুট হোক বা ব্যাকফুট, অনসাইড হোক বা অফসাইড- সবদিকেই সমান ভারসাম্য রয়েছে ওর ব্যাটিংয়ে। ওয়াশিংটনের বয়স ২১, ঋষভের ২৩। দুজনেই ভারতীয় ক্রিকেটের ভবিষ্যৎ। অস্ট্রেলিয়ার পর ঘরের মাঠে চাপের মধ্যে মাথা ঠান্ডা রেখে ব্যাটিং করতে দেখলাম। প্রেসার-সিচুয়েশন নবাগতদের পরখের মঞ্চ। সুন্দররা বুঝিয়ে দিল, ওরা প্রস্তুত।

ইংল্যান্ড ব্যাটিং নিয়ে প্রশংসনীয় কোনও শব্দ খরচের পথে হাঁটেননি মাইকেল ভন। তাঁর মতে, অক্ষর প্যাটেলকে নিয়ে ভয়ে কুঁকড়ে গিয়েছে ইংরেজ ব্যাটসম্যানরা। সোশ্যাল মিডিয়ায় এব্যাপারে ভন লিখেছেন, অক্ষরকে নিয়ে রীতিমতো ভয়ে ছিল ওরা। যেভাবে ওকে খেলেছে রুটরা, দেখে মনে হয়েছে অক্ষর বুঝি বিষেন সিং বেদি আর ডেরেক আন্ডারউডের সংমিশ্রণ।