কাজ না মেলায় পরিযায়ী শ্রমিকদের বিক্ষোভ

268

দেবাশিষ দত্ত, পারডুবি: পরিযায়ী শ্রমিকদের নিয়ে ছিনিমিনি খেলার অভিযোগ তুলে ফের বিক্ষোভ দেখাল শতাধিক পরিযায়ী শ্রমিক। বৃহস্পতিবার মাথাভাঙ্গা-২ ব্লকের পারডুবি গ্রাম পঞ্চায়েতের পশ্চিম পারডুবি এলাকার শতাধিক পরিযায়ী শ্রমিকেরা ১০০ দিনের কাজের দাবি জানিয়ে ফের গ্রাম পঞ্চায়েত কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ দেখালো। স্থানীয় পরিযায়ী শ্রমিকরা জানান প্রায় ১৫ দিন আগেও তারা কাজের দাবি জানিয়ে বিক্ষোভ দেখান। সেসময় প্রধান আশ্বস্ত করেছিলেন ঊর্ধতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়ে কাজের ব্যবস্থা করা হবে।

এরপর কয়েক দিন পেরিয়ে গেলেও কাজ না পাওয়ায় দিশেহারা পরিযায়ী শ্রমিকেরা এদিন ফের গ্রাম পঞ্চায়েত কার্যালয়ে এসে বিক্ষোভ দেখান। পরে প্রধানের সঙ্গে দেখা করে প্রায় ১০২ জন পরিযায়ী শ্রমিকের নামের তালিকা সহ প্রয়োজনীয় কাগজপত্র প্রধানের হাতে তুলে দেওয়া হয়। প্রধান এদিনও আশ্বস্ত করেন বিডিওকে জানিয়ে তাদের কাজ দেওয়ার বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

- Advertisement -

পরিযায়ী শ্রমিকেরা জানালেন স্থানীয় প্রশাসন আমাদের মতো সাধারণ পরিযায়ী শ্রমিকদের নিয়ে রীতিমতো ছিনিমিনি খেলছে। প্রায় ১৫ দিন আগে কাজ দেওয়ার কথা বলে আশ্বাস দিলেও এখনও কাজ না পেয়ে হতাশায় ভুগছি। তাই এদিন বিক্ষোভ শামিল হয়েছে এলাকার শতাধিক পরিযায়ী শ্রমিকেরা। তাঁরা জানান, করোনা মহামারির জন্য কাজ না পেয়ে দিশেহারা অবস্থা। তাই তারা কাজের দাবিতে এদিন ফের এসে বিক্ষোভ দেখান।

শ্রমিকদের মধ্যে কয়েকজন জানান, দীর্ঘদিন বসে থাকায় কাজ না পেয়ে করোনা পরিস্থিতি একটু স্বাভাবিক হলে আবার ভিন রাজ্যেই ফিরে যাব, কি হয় হবে। আবার অনেকে যেতে চাইছেন না। তাই এদিন বিপাকে পড়ে প্রায় শতাধিক পরিযায়ী শ্রমিকরা মিলে ১০০ দিনের কাজের দাবি জানিয়ে বিক্ষোভ দেখিয়ে তাদের নামের তালিকা ও জবকার্ড যাদের নেই সেই তালিকা।

স্থানীয় বেশকিছু পরিযায়ী শ্রমিকরা জানান আর্থিক অবস্থা তেমন স্বচ্ছল নয়, ভিন রাজ্যে কাজে গিয়ে ওখানে বসে খেয়ে সব ফুরিয়ে গিয়েছিল টাকাকড়ি। এখন কর্মহীন হয়ে পড়ায় সংসারে অভাব দেখা দিয়েছে। তারা জানান, দাবি আগেও জানিয়েছিলাম কিন্তু কাজ পাইনি। এলাকায় যাতে ১০০ দিনের কাজ পেয়ে আপাতত দুমুঠো খেয়ে বাঁচতে পারবো সেজন্য এদিন ফের বিক্ষোভ দেখান তারা। এই পরিযায়ী শ্রমিকদের বেঁচে থাকার লড়াই দিনকে দিন আরো কঠিন হয়ে উঠেছে বলে শ্রমিকরা জানিয়েছেন।

এ বিষয়ে স্থানীয় গ্রাম পঞ্চায়েত সূত্রে জানা গিয়েছে, লকডাউনের সময়কালে ঘরেফেরা কর্মহীন পরিযায়ী শ্রমিকদের কাজের সন্ধানেই উর্ধতন কর্তৃপক্ষকে জানানোও হয়েছে। ঊর্ধতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশ না আসায় এখনো ওই এলাকার পরিযায়ী শ্রমিকদের কাজ দেওয়া সম্ভব হয়নি। খুব শীঘ্রই বিডিও সহ উর্ধতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হবে।

এবিষয়ে পারডুবি গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান অশোক বর্মন জানান মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে দলমত নির্বিশেষে পরিযায়ী শ্রমিক সহ সকলে যাতে কাজ পায় সেবিষয়ে গ্রাম পঞ্চায়েতের তরফে উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। ওই এলাকার পরিযায়ী শ্রমিকদের কাজের বিষয়ে উর্ধতন কর্তৃপক্ষকে ইতিমধ্যেই জানানো হয়েছে।

এদিন ওই এলাকার ১০২ জন পরিযায়ী শ্রমিকরা তাদের নামের তালিকা ও কাগজপত্র জমা দিয়েছে, ‘বিষয়টি খতিয়ে দেখে আমি আমার ঊর্ধতন কর্তৃপক্ষ বিডিও সাহেবকে জানাবো যাতে তারা সবাই শীঘ্রই কাজ পায় ১০০ দিনের প্রকল্পে।’