কুপন না পেয়ে বিডিও অফিসে বিক্ষোভ পরিযায়ী শ্রমিকদের

262

আশিস মণ্ডল, রামপুরহাট: চাল-ডালের কুপনের দাবিতে বিডিও অফিস ঘেরাও করে বিক্ষোভ দেখালেন তিন শতাধিক পরিযায়ী শ্রমিক। এই নিয়ে বিডিও অফিসে স্মারকলিপিও জমা দেওয়া হয়। সকলের হাতেই দেওয়া হবে কুপন, বিডিওর এই আশ্বাসে ফিরে যান আন্দোলনরত শ্রমিকরা। রাজ্য সরকার ঘোষণা করেছিল যাদের র‍্যাশন কার্ড নেই, কিংবা পরিযায়ী শ্রমিক তাদের কুপনের মাধ্যমে চাল ডাল দেওয়া হবে। কিন্তু বীরভূমের মুরারই-২ নম্বর ব্লকের জাজিগ্রামের অধিকাংশ পরিযায়ী শ্রমিক কুপন পাননি। তাদের অভিযোগ পঞ্চায়েত সদস্যরা তাদের কাছের মানুষদের ওই সমস্ত কুপন বাড়িতে পৌঁছে দিয়েছে।

র‍্যাশন কার্ড রয়েছে এমন পরিবারকেও কুপন দিয়েছে পঞ্চায়েত সদস্যরা। এরই প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার বেলার দিকে পাইকড়ে বিডিও অফিসে বিক্ষোভ দেখান পরিযায়ী শ্রমিকরা। শ্রমিক সুমিত মজুমদার বলেন, ‘জাজিগ্রামে ৫ জন পঞ্চায়েত সদস্য রয়েছেন। বিডিও অফিস থেকে ওই এলাকার জন্য যে কুপন বরাদ্দ করা হয়েছিল তা প্রকৃত প্রাপকরা পায়নি। যারা বিডিও অফিস দখল করে পঞ্চায়েত নির্বাচনে কাউকে মনোনয়ন জমা দিতে দেয়নি সেই সমস্ত পরিবারকে কুপন দেওয়া হয়েছে। অথচ তাদের র‍্যাশন কার্ড রয়েছে। তারই প্রতিবাদে আমাদের আন্দোলন।’

- Advertisement -

বিডিও অমিতাভ বিশ্বাস বলেন, ‘প্রথম ধাপে ৫ হাজার ৪০০ কুপন ছাড়া হয়েছে। তাই যারা এসেছিলেন তাদের বলেছি র‍্যাশন কার্ড থাকা সত্ত্বেও কুপন পেয়েছে এমন কিছু নির্দিষ্ট নাম দিন। তাহলে আমাদের তদন্ত করতে সুবিধা হবে। তবে পরের ধাপে প্রত্যেকে যাতে কুপন পায় তার ব্যবস্থা করা হবে।’ কিন্তু কিভাবে অনুপযুক্ত ব্যক্তিদের হাতে কুপন গেল? এ প্রশ্নে বিডিও বলেন, ‘প্রত্যেকে পঞ্চায়েতে আবেদন করেছিলেন। সেই আবেদন ব্লক এবং খাদ্য দপ্তর তদন্ত করে দেখে পঞ্চায়েতের মাধ্যমে কুপন দিয়েছে।’