Breaking News: গেরুয়া শিবিরে নাম লেখাতে নিশীথের সঙ্গে দিল্লি পৌঁছোলেন মিহির

750

কোচবিহার: জল্পনার অবসান ঘটিয়ে ২৭ নভেম্বর অর্থাৎ শুক্রবার কোচবিহারের বিজেপি সাংসদ নিশীথ প্রামাণিকের সঙ্গে দিল্লিতে পৌঁছোলেন ‘অভিমানী’ কোচবিহার দক্ষিণের তৃণমূল বিধায়ক মিহির গোস্বামী। এদিন বিকেলেই মিহিরবাবু সাংসদের সঙ্গে দিল্লিতে বিজেপির কার্যালয়ে যাবেন। সবকিছু ঠিক থাকলে সেখানে এদিনই বিজেপিতে তাঁর যোগ দেওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

প্রসঙ্গত, দলের প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করে গত ৩ অক্টোবর দলের সমস্তরকম সাংগঠনিক পদ থেকে নিজের অব্যাহতি ঘোষণা করেছিলেন বিধায়ক মিহির গোস্বামী। এরপর থেকেই তিনি দলের সঙ্গে আর কোনওরকম যোগাযোগ রাখেননি। তবে দলের সঙ্গে যোগাযোগ না রাখলেও সোশ্যাল মিডিয়ায় আবার কখনও বা সাংবাদিক বৈঠক করে প্রকাশ্যে তৃণমূলের জেলা ও রাজ্য নেতৃত্বের কঠোর সমালোচনা করছিলেন। এমনকি তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, দলের রাজ্য সভাপতি সুব্রত বক্সি ও তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়েরও সমালোচনা করতে তিনি ছাড়েননি। যা নিয়ে তৃণমূলের অন্দরে বেশ কিছুদিন ধরেই তোলপাড় চলছে। তবুও তৃণমূলের জেলা ও রাজ্য নেতৃত্ব চেয়েছিল কোনও প্রকারে মিহিরবাবুকে দলে ধরে রাখতে। বিধায়কের মান ভাঙাতে তাঁর বাড়িতে একে একে দলের মন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ, তৃণমূলের জেলা সভাপতি পার্থপ্রতিম রায় ও যুব সভাপতি অভিজিৎ দে ভৌমিক সকলেই আলাদাভাবে গিয়েছিলেন। কিন্তু মিহিরবাবুর মান ভাঙাতে সকলেই ব্যর্থ হন। এই অবস্থায় গতকাল সন্ধ্যা নাগাদ তিনি সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পোস্ট করেন। তাতে বিধায়ক পরিষ্কারভাবে জানিয়ে দেন তৃণমূল থেকে তিনি তাঁর সম্পর্ক ছিন্ন করছেন। এরপর থেকেই মিহিরবাবু বিজেপিতে কখন যোগ দেবেন তা নিয়ে কাউন্টডাউন শুরু হয়ে যায়। অবশেষে এদিন সকালে বিজেপি সাংসদ নিশীথ প্রামাণিকের সঙ্গে তিনি দিল্লি পৌঁছান।

- Advertisement -