‘ভোট কারও বাপের সম্পত্তি নয়’ মনোনয়ন পেশ করেই মন্তব্য মিম প্রার্থীর

221

চাঁচল: প্রত্যাশা মতোই মালতীপুর-৪৭ বিধানসভা আসনে মিমের প্রার্থী হলেন জেলা আহ্বায়ক মতিউর রহমান। পাহাড় প্রমাণ প্রতিশ্রুতি তুলে ধরে মঙ্গলবার মনোনয়ন পেশ করলেন তিনি। মনোনয়ন পেশের পরেই তাঁর মন্তব্য, ‘ভোট কারও বাপের সম্পত্তি নয়। গণতান্ত্রিক অধিকার। কে কি বলল তাতে কিছুই যায় আসে না।’ প্রসঙ্গত নির্বাচনি আবহে অনেকেই মিমকে ভোট কাটোয়া পার্টি বলে কটাক্ষ করেন। তার উত্তরেই এহেন মন্তব্য মিম প্রার্থীর।

দলীয় কর্মী-সমর্থকদের নিয়ে বিশাল মিছিল করে মনোনয়ম পত্র জমা দেন মিম প্রার্থী। মনোনয়ন পেশ পর্বে এদিন প্রার্থীর সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন মালতীপুর বিধানসভার পর্যবেক্ষক সারফরাজ সিদ্দিকি, জেলা নেতা সহিদুল ইসলাম সহ অন্যান্যরা। দলীয় সূত্রে খবর, গোটা রাজ্যে মোট সাতটি আসনে প্রার্থী দেওয়ার কথা ঘোষণা রয়েছে। তবে এবার মালদা জেলায় মোট দুটি আসনে লড়ছে মিম। একটি মালতীপুর-৪৭ ও অপরটি রাতুয়া-৪৮ আসন। দলীয় সূত্রে খবর, নির্বাচনি প্রচারে চলতি মাসের ৮ তারিখ মালতীপুরের মাটিতে পা রাখবেন আসাউদ্দিন ওয়েসী।

- Advertisement -

মনোনয়ন দাখিল করেই মালতীপুরে ঢালাও উন্নয়নের বার্তা দিয়ে মিম প্রার্থী মতিউর রহমান বলেন, ‘নির্বাচনে জয়লাভ করলে এলাকার জনগণের মৌলিক চাহিদাগুলি পূরণ করা হবে। বিশেষ করে রাস্তাঘাট, পানীয়জল, শিক্ষা ব্যবস্থার উন্নতির কথা ভাবা হবে। এছাড়াও মালতীপুরে একটি হিমঘর, থানা এবং একটি সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল নির্মাণ করা হবে। পিছিয়েপড়া এলাকার ছেলে-মেয়েদের জন্য নির্মাণ হবে ডিগ্রি কলেজও।’

এদিন মতিউর রহমান বলেন, ‘৭৪ বছর গোলামি করে কিছুই পাইনি। কিন্তু এখন আর আমরা গোলামি করতে চাই না।আমরা আমাদের হক ছিনিয়ে নিতে চাই।’ তাঁর কথায়, আমাদের লড়াই অপশক্তির বিরুদ্ধে। যে দল আবাস যোজনার ঘর দেওয়ার নামে কাটমানি খায়, চাকরি দেওয়ার নামে লক্ষ লক্ষ টাকা ঘুষ নেয়। তাঁদের বিরুদ্ধেই আমাদের লড়াই।