মেয়েদের বিয়ের বয়স বাড়াবেন না, হস্তক্ষেপ চেয়ে মোদিকে চিঠি মহিলা মুসলিম লিগের

620

নয়াদিল্লি: মেয়েদের বৈধ বিয়ের বয়স ১৮ থেকে বাড়িয়ে ২১ বছর করার প্রস্তাবের তীব্র বিরোধিতা করে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে চিঠি লিখল মুসলিম লিগের মহিলা শাখা ইন্ডিয়ান ইউনিয়ন উইমেন লিগ। উইমেন লিগের দাবি, মেয়েদের বিয়ের বয়স বাড়লে ‘লিভ-ইন-সম্পর্ক’ ও ‘অবৈধ মেলামেশা’ বেড়ে যাবে। সংগঠনের সচিব পিকে নুরবানা রশিদ প্রধানমন্ত্রীকে এমন গুরুত্বপূর্ণ সামাজিক ইস্যুতে ‘তড়িঘড়ি’ সিদ্ধান্ত নেওয়া থেকে বিরত থাকার আবেদন করেছেন। ২০০৬ সালের শিশু বিবাহ নিষিদ্ধকরণ আইন অক্ষরে অক্ষরে রূপায়ণ না করে মেয়েদের বিয়ের বয়স বাড়ানোর চেষ্টা অন্যায় বলেও তিনি দাবি করেন।

চিঠিতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ দাবি করে পিকে নুরবানা রশিদ বলেছেন, বহু উন্নয়নশীল দেশ জৈবিক ও সামাজিক প্রয়োজনীয়তার তাগিদে মেয়েদের আইনি বিয়ের বয়স ২১ থেকে কমিয়ে ১৮ বছর করেছে। এরকম পরিস্থিতিতে ভারতের মেয়েদের বিয়ের বয়স বাড়ানোর পক্ষে চটজলদি সিদ্ধান্ত নেওয়া ঠিক হবে না।

- Advertisement -

রশিদের প্রশ্ন, সাম্প্রতিক একটি রিপোর্টে প্রকাশ, গ্রামীণ এলাকায় ১৮ বছর হওয়ার আগেই ৩০ শতাংশ মেয়ের বিয়ে হয়ে যাচ্ছে। তাহলে চলতি আইন যথাযথ কার্যকর না করে এমন সিদ্ধান্ত নিতে চলার মানে কী? মেয়েদের বিয়ের বয়স বাড়ানোর সিদ্ধান্তে পৌঁছনোর আগে সঠিক আলোচনা হওয়া দরকার।