গ্রন্থাগারের উদ্বোধনে রেগে আগুন মন্ত্রী

563

শিলিগুড়ি : নবনির্মিত মানিক বন্দোপাধ্যায় গ্রন্থাগারের নতুন ভবনের উদ্বোধন করতে গিয়েই রেগে আগুন মন্ত্রী গৌতম দেব। ঝাঁ চকচকে ভবনে ঢুকে বইয়ের খোঁজ করেন মন্ত্রী। ঘরের এক কোণে থাকা কাপড় সরাতেই ছেঁড়া বই, ধুলোয় ভরা র‍্যাক দেখে ক্ষুব্ধ হন তিনি। উপস্থিত জেলা গ্রন্থাগারিককে উদ্দেশ্য করে উষ্মা প্রকাশ করেন।

মন্ত্রী বলেন, ‘নতুন নতুন বই নিয়ে আসুন, যেগুলো আছে সেগুলো পড়ার উপযুক্ত নয়।আমার মনে হয় বইগুলো বাঁধাই করতে হবে।পাশাপাশি পরিষ্কার করাও প্রয়োজন।ওখানে যা ধুলো মানুষ অসুস্থ হয়ে পড়বে। প্রয়োজনে চার থেকে পাঁচদিন সময় নিন। অব্যবহারযোগ্য বই বাছাই করুন, বাইরের রূপের সঙ্গে ভেতরের রূপটাও প্রয়োজন।’এব্যাপারে জেলা গ্রন্থাগারিক সৈকত গোস্বামী পাঠকদের বলেন, ‘পাঠাগারে ৭০০০ বই আছে,আপনাদের চাহিদা অনুযায়ী আরও বই আনব।পাঠাগারটি যখন বন্ধ হয় তখন ৩০০ সদস্য ছিল। আশা রাখছি সদস্য সংখ্যা বাড়বে।’

- Advertisement -

প্রসঙ্গত ঘোগোমালি বাজারে থাকা গ্রন্থাগারটি ১৯৮২ সালে তৈরি হয়। মাঝে পাঠাগারের কোনও গ্রন্থাগারিক না থাকায় গ্রন্থাগারটি বন্ধ হয়ে যায়। সময়ের সঙ্গে পুরো পাঠাগারটি ভঙ্গুর অবস্থায় চলে গেলে পর্যটনমন্ত্রী গৌতম দেবের উদ্যোগে সেটি নতুন করে সংস্কার করা হয়।