ইনজেকশন দিয়ে টানা আট বছর ধরে নাবালিকাকে ধর্ষণ

210
প্রতীকী

মুম্বই: ভয়ংকর ঘটনায় শিউরে উঠল বাণিজ্যনগরী। এক নাবালিকাকে অপহরণ করে ইনজেকশন দিয়ে টানা আট বছর ধরে ধর্ষণের অভিযোগ উঠল। মুম্বইয়ের আন্ধেরির ঘটনা। ঘটনায় ৪ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

জুনিয়র কলেজ স্টুডেন্ট ওই নাবালিকা পুলিশে অভিযোগে জানায়, তার প্রতিবেশি এই কাজ করেছে। জোর করে তাঁর শরীরে ইনজেকশন দেওয়া হত। অনেক সময় ট্যাবলেটও খাওয়ানো হত৷ অভিযুক্তের স্ত্রীও গোটা বিষয়টি জানত বলে অভিযোগ ওই নাবালিকার। নাবালিকার অভিযোগের ভিত্তিতে ওই দু’জনকে গ্রেপ্তার করা হয়৷ যদিও তারা সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করে। পাশাপাশি তদন্তে নেমে পুলিশ গ্রেপ্তার করে নাবালিকার কাকা ও তার ছেলেকে।

- Advertisement -

স্থানীয় আম্বোলি থানায় একটি ২৭ পৃষ্ঠার অভিযোগ জমা করা হয়। সেখানে উল্লেখ করা হয়েছে, ইনজেকশন দিয়ে প্রথমে নাবালিকার ওপর নির্যাতন চলত, যা ভিডিও করে রাখা হয়েছিল। পরবর্তীতে সেই ভিডিও দিয়ে ব্ল্যাকমেইলিং করে ধর্ষণ করা হত। ঘটনার পর থেকে অবসাদে ভুগতে থাকে ওই নাবালিকা। জানা গিয়েছে, এর আগে পুলিশে অপহরণের অভিযোগ দায়ের করেছিলেন নাবালিকার বাবা। দিল্লি ও উত্তরপ্রদেশে তল্লাশি চালিয়ে তাকে উদ্ধার করা হয়। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।