মৃত ব্যক্তিকে করোনার টিকা! আসল ঘটনা কী, পড়ুন…

153

রামপুরহাট: ১৪ বছর আগে মৃত ব্যক্তিকে দেওয়া হল করোনার টিকা! এমনকি মৃতের টিকা নেওয়ার শংসাপত্রও রয়েছে। এমনই চাঞ্চল্যকর ঘটনা ঘটেছে বীরভূমে। টিকাকরণ কর্মসূচির দায়িত্বে থাকা কর্মীদের গাফিলতির কারণে এমনটা ঘটেছে বলে অভিযোগ। যদিও বিষয়টি নিয়ে মুখ খুলতে চাননি স্বাস্থ্য দপ্তরের কোনও আধিকারিক।

জানা গিয়েছে, বীরভূমের রামপুরহাট থানার কবিচন্দ্রপুর গ্রামের বাসিন্দা অমরকুমার মণ্ডল। ২০০৭ সালে তাঁর বাবা দুলাল মণ্ডল মারা যান। চলতি বছরের ১ এপ্রিল অমরবাবু, তাঁর মা তোলাবতী মণ্ডল ও স্ত্রী জ্যোৎস্না মণ্ডল বালিয়া গ্রামের স্বাস্থ্যকেন্দ্রে টিকা নেন। কিন্তু মোবাইলে চারজনের শংসাপত্রের লিংক ঢোকে। ১৫ মে তাঁরা তিনজন দ্বিতীয় টিকা নেন। এবার শংসাপত্রের লিংক আসে দুটি। দিন দুয়েক আগে একটি সাইবার ক্যাফে থেকে শংসাপত্র প্রিন্ট করাতে গিয়ে তাঁদের চক্ষুচড়ক গাছ। বেরিয়ে আসে ১৪ বছর আগে মৃত বাবার টিকা নেওয়ার শংসাপত্রও।

- Advertisement -

অমর মণ্ডল বলেন, ‘বাবা মারা গিয়েছেন ১৪ বছর আগে। তাঁকে কীভাবে টিকা দেওয়া হল, বুঝতে পারলাম না।’ প্রতিবেশী বুদ্ধদেব দাস বলেন, ‘এসব দেখে মনে হচ্ছে যাঁরা টিকাকরণ কর্মসূচির দায়িত্বে রয়েছেন, তাঁরা হয় অনভিজ্ঞ অথবা দায়সারা কাজ করছেন। কীভাবে এমনটা হল, তার তদন্ত হওয়া প্রয়োজন।’