করোনার বিরুদ্ধে বেশি কার্যকরী হতে পারে মিশ্র টিকা, মত এইমস প্রধানের

197
প্রতীকী

নয়াদিল্লি: করোনার বিরুদ্ধে লড়তে মিশ্র টিকার ওপর জোর দিচ্ছে একাধিক দেশ। ভারতের ক্ষেত্রেও সেই সম্ভাবনা উড়িয়ে দিলে‌ন না অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অফ মেডিকেল সায়েন্সেস (এইমস)-এর প্রধান রণদীপ গুলেরিয়া। তিনি জানান, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোর ক্ষেত্রে মিশ্র টিকা ব্যবহার করা যেতে পারে। তবে এই নিয়ে আরও পরীক্ষার প্রয়োজন। গুলেরিয়া জানান, কোন দু’টি মিশ্রণ কার্যকরী হতে পারে, তা নিয়ে গবেষণা হওয়া প্রয়োজন। প্রাথমিক সমীক্ষায় বলা যায় এটি বিকল্প হতে পারে। পাশাপাশি তিনি জানিয়েছেন, দ্বিতীয় ঢেউয়ের তুলনায় তৃতীয় ঢেউ ভয়াবহ হবে কিনা তা নিয়েও নানা আলোচনা চলছে। তাঁর মতে, ততটা ভয়াবহ হবে না কোভিডের তৃতীয় ঢেউ।

করোনা ভাইরাসের জেরে বিধ্বস্ত গোটা দেশ। তারওপর করোনার ডেল্টা এবং ডেল্টা প্লাস প্রজাতি নিয়ে নতুন করে উদ্বেগ বাড়ছে। সেই সঙ্গে করোনার তৃতীয় ঢেউ ঘিরে সিঁদুরে মেঘ দেখছেন চিকিৎসকরা। দেশে করোনার ডেল্টা এবং ডেল্টা প্লাস প্রজাতি নিয়ে উদ্বেগের অন্যতম কারণ হিসেবে দুই টিকার মধ্যবর্তী বর্ধিত ব্যবধানকেও দুশ্চিন্তার কারণ বলে মনে করছেন অনেকেই। গুলেরিয়ার বক্তব্য, ডেল্টা প্রজাতির বিরুদ্ধে প্রাথমিক টিকাকরণ সম্ভবত যথেষ্ট নয়। সেক্ষেত্রে যত তাড়াতাড়ি বুস্টার ডোজ দেওয়া যায়, ততই ভালো। ইতিমধ্যেই বিভিন্ন দেশে মিশ্র টিকার ওপর জোর দেওয়া হচ্ছে। আমেরিকায় ২৮ দিনের ব্যবধানে ফাইজার এবং মডার্নার মিশ্র টিকা দেওয়া হচ্ছে। জানা গিয়েছে, ব্রিটেনেও বিশেষ ক্ষেত্রে মিশ্র টিকায় ছাড় দেওয়া হয়েছে।

- Advertisement -