ভারতের একমাত্র এই রাজ্যে করোনায় মৃত্যুর ঘটনা ঘটেনি!

995

অনলাইন ডেস্ক: ভারতের মধ্যে কেরলে প্রথম করোনার সংক্রমণ ধরা পড়ে। তারপর সময় যত গড়িয়েছে একের পর এর রাজ্যে করোনার থাবা পড়েছে। করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে করোনার বলিও হন বহু মানুষ। একের পর এক রাজ্যে করোনায় মৃত্যু ঘটতে থাকে। তবে ভারতের একটিমাত্র রাজ্যে এখনও পর্যন্ত কোনও করোনা আক্রান্তের মৃত্যু হয়নি। সে রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্য়া ১০০০ ছাড়ালেও করোনার বলি হননি কেউ। উত্তর-পূর্বের ছোট্ট রাজ্য মিজোরামের কথা বলা হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার সকালে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের দেওয়া পরিসংখ্যান অনুযায়ী, করোনা আক্রান্তের সংখ্যার নিরিখে দেশের রাজ্যগুলির মধ্যে সবার নীচে রয়েছে রয়েছে মিজোরাম। সেখানে এখনও পর্যন্ত ১,০২০ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। যার মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ৬৬১ জন। মৃত্যু ঘটনা ঘটেনি। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে কেউ আক্রান্ত হননি। তবে ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৪৯ জন। সেখানে করোনা অ্যাক্টিভ কেসের সংখ্যা ৩৫৯।

- Advertisement -

এদিকে দেশে ক্রমাগত বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। ২৪ ঘন্টায় দেশে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৮৩,৮৮৩। একদিনে মৃত্যু হয়েছে ১,০৪৩ জনের। একদিনে সুস্থ হয়েছে ৬৮,৫৮৪ জন। বৃহস্পতিবার কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, দেশে এখনও পর্যন্ত করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩৮,৫৩,৪০৬। তার মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ২৯,৭০,৪৯২ জন। দেশে এখনও পর্যন্ত সুস্থতার হার প্রায় ৭৭ শতাংশ। মৃত্যু হয়েছে ৬৭,৩৭৬ জনের। অর্থাৎ, দেশে এখনও পর্যন্ত করোনা অ্যাক্টিভ কেসের সংখ্যা ৮,১৫,৫৩৮।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের দেওয়া পরিসংখ্যান অনুযায়ী, করোনা আক্রান্তের সংখ্যার নিরিখে সবার ওপরে রয়েছে মহারাষ্ট্র। সেখানে এখনও পর্যন্ত ৮,২৫,৭৩৯ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। যার মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ৫,৯৮,৪৯৬ জন। মৃত্যু হয়েছে ২৫,১৯৫ জনের। অর্থাৎ, সেখানে করোনা অ্যাক্টিভ কেসের সংখ্যা ২,০২,০৪৮।

পরিসংখ্যান অনুযায়ী, মহারাষ্ট্রের পরই রয়েছে অন্ধ্রপ্রদেশ। সেখানে করোনা আক্রান্ত ৪,৫৫,৫৩১। সুস্থ হয়েছেন ৩,৪৮,৩৩০ জন। মৃত্যু হয়েছে ৪,১২৫ জনের। সেখানে করোনা অ্যাক্টিভ কেসের সংখ্যা ১,০৩,০৭৬। এরপর রয়েছে তামিলনাড়ু। সেখানে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৪,৩৯,৯৫৯। সুস্থ হয়েছে ৩,৮০,০৬৩। মৃত্যু হয়েছে ৭,৫১৬ জনের। সেখানে করোনা অ্যাক্টিভ কেসের সংখ্যা ৫২,৩৮০।