দেশের করোনা পরিস্থিতি পর্যালোচনায় বৈঠক প্রধানমন্ত্রীর

275
ফাইল ছবি

নয়াদিল্লি: ভারতে করোনা সংক্রমণ ক্রমশ বাড়ছে। দেশে এখনও পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্য়া ৩ লক্ষ ৮ হাজার ৯৯৩। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ১১ হাজার ৪৫৮ জন সংক্রামিত হয়েছেন। এখনও পর্যন্ত দেশে করোনায় মৃতের সংখ্যা ৮ হাজার ৮৮৪। গত ২৪ ঘণ্টায় ৩৮৬ জন করোনা আক্রান্ত প্রাণ হারিয়েছেন। আক্রান্তের সংখ্যার নিরিখে ভারত বিশ্বে চতুর্থ স্থানে রয়েছে। মহারাষ্ট্র, তামিলনাড়ু, দিল্লি, গুজরাট, উত্তরপ্রদেশ, রাজস্তান, মধ্যপ্রদেশ, পশ্চিমবঙ্গে করোনা ক্রমেই ভয়ানক আকার নিচ্ছে।

দেশের করোনা পরিস্থিতি পর্যালোচনার জন্য শনিবার বৈঠক করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সেই বৈঠকে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষ বর্ধন, প্রধানমন্ত্রীর প্রিন্সিপাল সেক্রেটারি প্রোমোদকুমার মিশ্র, ক্যাবিনেট সচিব রাজীব গৌবা প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। দেশে যেভাবে করোনা সংক্রমণ বাড়ছে তা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন খোদ প্রধানমন্ত্রী।

- Advertisement -

নীতি আয়োগের সদস্য তথা এমপাওয়ার্ড গ্রুপ অফ মেডিকেল ইমারজেন্সি ম্যানেজমেন্ট প্ল্যানের আহ্বায়ক বিনোদ পাল সেই বৈঠকে জানান, দেশে মোট করোনা আক্রান্তের দুই-তৃতীয়াংশ পাঁচটি রাজ্যের বাসিন্দা। বড় শহরগুলিতে আক্রান্তের সংখ্যা বেশি। বিনোদ পাল এদিন প্রধানমন্ত্রীর সামনে দেশের করোনা পরিস্থিতির বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরেন।

রাজধানীতে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়তে থাকায় চিন্তিত প্রধানমন্ত্রী। এদিনের বৈঠকে দিল্লির করোনা পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা হয়। আগামী দু’মাসে পরিস্থিতি কোথায় গিয়ে দাঁড়াতে পারে সেটা নিয়ে জানতে চান নরেন্দ্র মোদী।

দিল্লির করোনা পরিস্থিতির মোকাবিলায় পরিকল্পনা তৈরির জন্য কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ ও স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষ বর্ধনকে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল, লেফটেন্য়ান্ট গভর্নর, মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশন এবং উচ্চপদস্থ আমলাদের সঙ্গে জরুরি বৈঠকের পরামর্শ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

এছাড়া, বর্ষা আসন্ন। তাই সংক্রমণ বাড়ার সম্ভাবনার কথা মাথায় রেখে স্বাস্থ্যমন্ত্রককে তৈরি থাকার কথা  বলেছেন প্রধানমন্ত্রী।

সংক্রামিতের সংখ্যা ক্রমশ বাড়তে থাকায় বিভিন্ন মহল থেকে লকডাউনের মেয়াদ বাড়ানোর দাবি উঠেছে।  তাই লকডাউনের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে ফের ভার্চুয়াল বৈঠক করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। ১৬ ও ১৭ জুন দু’দফায় এই বৈঠক হবে বলে জানা গিয়েছে।