পাঁচ বছরে মোদির বিদেশ ভ্রমণে খরচ ৫১৭ কোটি

741
ফাইল ছবি

নয়াদিল্লি: বিরোধী নেতারা প্রায়ই এনআরআই প্রধানমন্ত্রী বলে কটাক্ষ করেন তাঁকে। সেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির গত পাঁচ বছরে বিদেশ সফরে খরচ হয়েছে মাত্র ৫১৭.৮২ কোটি টাকা! মঙ্গলবার রাজ্যসভায় লিখিত বিবৃতি দিয়ে জানিয়েছেন বিদেশ প্রতিমন্ত্রী ভি মুরলিধরন। তিনি বলেন, ক্ষমতায় আসার পর গত পাঁচ বছরে (২০১৫ থেকে ধরে) ৫৮টি দেশে মোদি গিয়েছেন। এর মধ্যে রাশিয়া ও আমেরিকায় গিয়েছেন সবচেয়ে বেশি, পাঁচ বার করে। এছাড়া যে চিনের সঙ্গে ভারত এখন সীমান্ত সংঘাতে জড়িয়ে পড়েছে, সে দেশেও মোদি এই কয়েকবছরে গিয়েছেন ৫ বার। এছাড়া সিঙ্গাপুর, জার্মানি, ফ্রান্স, সংযুক্ত আরব আমিরশাহি এবং শ্রীলঙ্কাতেও তিনি গিয়েছেন। তাঁর আপাতত শেষ বিদেশ সফর ছিল গত নভেম্বরে ব্রাজিলে। তার আগে ওই মাসেই মোদি গিয়েছিলেন থাইল্যান্ডে। ২০২০ সালে করোনা শুরু হয়ে যাওয়ার পর প্রধানমন্ত্রী আর দেশের গন্ডি পেরোননি বলে জানিয়েছেন মুরলিধরন।

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালে কেন্দ্রীয় সরকার জানিয়েছিল, ২০১৪ সাল থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী মোদির বিদেশ সফর বাবদ খরচ ২ হাজার কোটি টাকা ছাড়িয়ে গিয়েছিল। সেই হিসেবের সঙ্গে এদিনের হিসেব মেলেনি। তখন অবশ্য চার্টার্ড ফ্লাইট, বিমানের রক্ষণাবেক্ষণ এবং হটলাইন যোগাযোগের খরচও ধরা হয়েছিল। এই হিসেব তখন পেশ করেছিলেন তত্কালীন বিদেশ প্রতিমন্ত্রী ভিকে সিং। তাঁর দেওয়া হিসেব অনুযায়ী, ২০১৪ সালের ১৫ জুন থেকে ২০১৮ সালের ৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রীর বিমান রক্ষণাবেক্ষণের জন্য ১৫৮৩.১৮ কোটি, চার্টার্ড ফ্লাইটের ভাড়া বাবদ ৪২৯.২৫ কোটি এবং বিমানে সফর কালীন হটলাইন যোগাযোগ বাবদ ৯.১১ কোটি টাকা খরচ হয়েছিল কেন্দ্রীয় কোষাগার থেকে।

- Advertisement -