তৃণমূলের চোরদের ধরে ঘর ভরছে বিজেপি: সেলিম

130

সামসী: রতুয়ার সম্বলপুরে সিপিএমের জনসভা থেকে কেন্দ্র ও রাজ্য সরকারকে কড়া ভাষায় আক্রমণ করলেন প্রাক্তন সাংসদ তথা সিপিএমের পলিটব্যুরো সদস্য মহম্মদ সেলিম। বিজেপিকে সাম্প্রদায়িক দল বলে কটাক্ষ করে মহম্মদ সেলিম বলেন, ‘বিজেপির কাজই হল জাতপাতের রাজনীতি করা। দেশের উন্নয়ন নিয়ে তাদের মাথা ব্যাথা নেই। বিজেপি বিভাজনের রাজনীতিতে বিশ্বাসী। তাঁদের মুখে হিন্দু, মুসলিম, পাকিস্তান ছাড়া আর কোনও কথা নেই।’ বিজেপিকে পুঁজিবাদীদের সরকার আখ্যা দিয়ে তিনি জানান, পুঁজিবাদীদের স্বার্থ রক্ষা করার নয়া কৃষি আইন এনেছে বিজেপি। এই আইনের বিরোধিতা করে দিল্লিতে কৃষকদের আন্দোলনকে সমর্থন জানিয়েছেন তিনি।

তৃণমূল নেত্রীকে কটাক্ষ করে মহম্মদ সেলিম বলেন, ‘মোদি-মমতার তলে তলে সেটিং রয়েছে। তৃণমূল ও বিজেপির মধ্যে কোনও নীতিগত পার্থক্য নেই। দিদির মুখের কথার সঙ্গে কাজের কোনও মিল নেই।’ তৃণমূলের চোরদের ধরে বিজেপি নিজেদের ঘরে ভরছে বলেও কটাক্ষ করেন সেলিম। এদিনের জনসভা থেকে শুভেন্দু অধিকারীরও কড়া সমালোচনা করে মহম্মদ সেলিম বলেন, ‘বিজেপিতে গিয়ে শুভেন্দু এখন বাসি থেকে টাটকা জিনিস হয়ে গিয়েছে। নারদা, সারদা থেকে বাঁচতে তৃণমূল ছেড়ে পালিয়েছে। সেই দলে মুকুল, শোভনরাও রয়েছেন।’ মহিলাদের সুরক্ষা ব্যবস্থা নিয়ে প্রশ্ন তোলার পাশাপাশি সেলিম সাহেব মোদি-মমতাকে সরাতে এখন থেকেই কোমর বেঁধে নেতা-কর্মীদের ময়দানে ঝাঁপিয়ে পড়ার আহ্ববান জানান। বৃহস্পতিবার মালদার রতুয়া-২ ব্লকের সম্বলপুর তেল পাম্প সংলগ্ন মাঠে সিপিএমের জনসভা ছিল। জনসভায় উপস্থিত ছিলেন দলের মালদা জেলা সম্পাদক অম্বর মিত্র, দলের রাজ্য কমিটির সদস্য জামিল ফিরদৌস, দলের জেলা কমিটির সদস্য জহুর আলম, রতুয়া-১ ও ২-এর এরিয়া কমিটির সম্পাদক জয়নাল আবেদিন সহ আরও অনেকে।

- Advertisement -