২০২৪-এ দিল্লির মসনদে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, দাবি মলয়ের

102

আসানসোল: ২০২৪ সালে দিল্লির মসনদে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শনিবার আসানসোলে দলের কর্মীসভায় যোগ দিয়ে এই দাবি করলেন রাজ্যের আইন ও পূর্ত দপ্তরের মন্ত্রী মলয় ঘটক। তাঁর কথায়, ২০২৩ সালে ত্রিপুরায় সরকার গঠন করতে চলেছে তৃণমূল কংগ্রেস। আর ২০২৪ সালের লোকসভা নির্বাচনের পরে দিল্লির মসনদে প্রধানমন্ত্রী হয়ে বসবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

মলয় ঘটক বলেন, ‘এবারের বিধানসভা নির্বাচনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় যে লড়াই লড়েছেন, তা প্রশ্নাতীত। সবাই তো বাংলাতে বিজেপিকে ক্ষমতায় বসিয়ে দিয়েছিল। কিন্তু তারা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে বুঝতে পারেনি। সবচেয়ে বেশি বিধায়ক নিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বাংলায় তৃতীয়বারের জন্য সরকারে বসেন।’ তিনি বলেন, ‘এবারের বিধানসভা নির্বাচনে দলের কিছু লোক দলে থেকে পিছন থেকে ছুরি মেরেছিল। তাদের চিহ্নিত করার কাজ চলছে। কাউকে ছাড়া হবে না। আমরা এই আসানসোল লোকসভা কেন্দ্রে দলকে জেতাতে পারিনি। যেটা আমাদের আক্ষেপ। তাই ২০২৪ সালের নির্বাচনে দলের যেই প্রার্থী হোক না কেন, তাঁকে জিতিয়ে দিল্লিতে পাঠাতে হবে।’

- Advertisement -

দলের শ্রমিক সংগঠনের সভাপতি অভিজিৎ ঘটক বলেন, ‘বিধানসভা নির্বাচনের আগে বিজেপিতে যাওয়া দলের নেতাদের ছাড়াই তৃণমূল বাংলায় ২০০ পার করেছে।’ দলের এইসব নেতাদের আবর্জনার সঙ্গে তুলনা করেন তিনি। বলেন, ‘এখানে তাঁদের আর প্রয়োজন নেই। তাঁদের বিজেপিতে থাকতে দেওয়া উচিত।’ সভায় দলের রাজ্য সম্পাদক ভি শিবদাসন বলেন, ‘পুর নির্বাচনে তৃণমূল আসানসোল পুরনিগমের বিপুল সংখ্যা গরিষ্ঠতা নিয়ে বোর্ড গঠন করবে। আসানসোলের মানুষ বিজেপিকে প্রত্যাখ্যান করবে।’