অ্যাকাউন্ট খুললেই নাকি ঢুকবে টাকা, গুজবে ভিড় ডাকঘরে

540

জাকির হোসেন, ফেশ্যাবাড়ি: ডাকঘরে জিরো ব্যালান্স অ্যাকাউন্ট খুললেই নাকি ঢুকবে টাকা! এমন গুজব ছড়িয়েছে এলাকায়। তার জেরেই ব্যাপক ভিড় কোচবিহারের প্রেমেরডাঙ্গা বাজারের খট্টিমারি পোস্ট অফিসে।

গুজবের জেরে লকডাউনের মাঝেই পোস্ট অফিসে জিরো ব্যালান্সের অ্যাকাউন্ট খোলার হিড়িক পড়েছে। ফলে স্থানীয়দের ভিড় উপচে পড়ছে। মানা হচ্ছে না কোনওরকম সামাজিক দূরত্ব। গাদাগাদি করে দাঁড়িয়ে খুলতে হচ্ছে জিরো ব্যালান্সের অ্যাকাউন্ট। অধিকাংশ পুরুষ, মহিলার মুখে মাস্ক নেই। কাউকে কাউকে আবার ওড়না, শাড়ির আঁচল দিয়ে মুখ ঢাকতে দেখা গিয়েছে। প্রশাসনের তরফে কোনওরকম ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি বলে অভিযোগ উঠেছে।

- Advertisement -

মঙ্গলবার মাথাভাঙ্গা-২ ব্লকের প্রেমেরডাঙ্গা বাজারে থাকা খট্টিমারি পোস্ট অফিসের সামনে এই দৃশ্য দেখা গিয়েছে। এদিন পোষ্ট অফিসে আসা গ্রাহকরা জানান, পোষ্ট অফিসে জিরো ব্যালেন্সের অ্যাকাউন্ট খুললে কেন্দ্র সরকারের তরফে টাকা দেওয়া হচ্ছে। এই গুজব বিস্তীর্ণ এলাকায় ছড়িয়েছে। যার জেরে সকলে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র নিয়ে পোষ্ট অফিসের সামনে হাজির হচ্ছেন জিরো ব্যালান্সের অ্যাকাউন্ট খোলার জন্য। আর তাতে শতাধিক পুরুষ, মহিলার ভিড় উপচে পড়ছে। মানা হচ্ছে না কোনও সামাজিক দূরত্ব। ভিড় সামলাতে পুলিশ-প্রশাসন ব্যবস্থা নিচ্ছেন না বলে অভিযোগ গ্রাহকদের একাংশের।

অ্যাকাউন্ট খুলতে আসা এক গৃহবধূ ললিতা দাস বলেন, অন্যান্যদের মতো আমিও জিরো ব্যালান্সের অ্যাকাউন্ট খোলার জন্য এসেছি। যে ভিড় দেখলাম অ্যাকাউন্ট না খুলেই চলে যাচ্ছি। আর এক যুবক জানিয়েছেন, এলাকায় অ্যাকাউন্ট খোলার গুজব ছড়িয়েছে। অফিসের সামনে যেভাবে ভিড় জমছে তাতে দ্রুত সংক্রমণ ছাড়ানোর আশঙ্কা রয়েছে। অবিলম্বে প্রশাসনের ব্যবস্থা নেওয়া উচিত। প্রেমেরডাঙ্গা গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান কল্পনা বর্মন বলেন, স্থানীয়দের গুজবে কান না দেওয়া আবেদন জানাচ্ছি। পুলিশকে বলব লকডাউনে জমায়েত এড়াতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে।

পোস্ট মাস্টার ফিরোজ আলম বলেন, স্থানীয়রা জিরো ব্যালান্সের অ্যাকাউন্ট খোলার জন্য অফিসের বাইরে ভিড় জমাচ্ছেন। সবাইকে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে দাঁড়ানোর আবেদন জানানো হয়েছে। কীভাবে গুজব ছড়িয়েছে জানি না। কেউ অ্যাকাউন্ট খুলতে চাইলে না করতে পারি না। পুলিশ জানিয়েছে, জমায়েত এড়াতে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।