তৃণমূলে ভাঙন, শুভেন্দুর হাত ধরে পদ্ম শিবিরের পথে কয়েকশো নেতা-কর্মী

249

কলকাতা: অমিত শা’র হাত থেকেই বিজেপির পতাকা হাতে তুলে নিয়েছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। আর সেই পতাকা জেলা সহ রাজ্যে ছড়িয়ে দেওয়ার শপথ নেন ১৯ ডিসেম্বর। ২০২০-তে কয়েকজন তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদান করেছিলেন। এবার বছর শুরুর প্রথম থেকেই ঝাঁকে ঝাঁকে তৃণমূল থেকে আরও বেশ কয়েকজনকে বিজেপিতে যোগদান করার কাজ ইতিমধ্যেই শুরু করে দিয়েছেন শুভেন্দুবাবু। কাঁথিতে শুক্রবার অর্থাৎ পয়লা জানুয়ারি কাঁথি পুরসভার প্রাক্তন চেয়ারম্যান সৌমেন্দু অধিকারী, ১৪ জন বিদায়ী কাউন্সিলার সহ কয়েকশো কর্মী-সমর্থকদের যোগদান করান। ২ জানুয়ারি, শনিবার হলদিয়ার দ্বারবেরিয়ায় জেলা পরিষদের সদস্য থেকে গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান সহ কয়েকশো নেতা-কর্মী তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদান করবেন বলেই খবর।

শুভেন্দু অধিকারী তৃণমূল ছাড়তেই ক্রমশ ভাঙন শুরু হয় তৃণমূলের অন্দরে। ইতিমধ্যে পূর্ব মেদিনীপুর জেলার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে বহু তৃণমূল কংগ্রেস কর্মী বিজেপিতে যোগদান করেছেন। একাধিক হেভিওয়েট নেতা শুভেন্দু-অনুগামী হওয়ায় দল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদান করেছেন। এবার ফের বড়সড় ভাঙন তৃণমূলের অন্দরে। পূর্ব মেদিনীপুর জেলার মহিষাদল ও হলদিয়া, সুতাহাটা ব্লকের কয়েকশো তৃণমূল নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি বিজেপিতে যোগদান করবেন। যাদের হলদিয়া ব্লকের জেলাপরিষদ সদস্য সোমনাথ ভুঁইয়া, মহিষাদল ব্লকের ইটামগরা-২ গ্রাম পঞ্চায়েতের ভারপ্রাপ্ত প্রধান রামকৃষ্ণ দাস তিনি বিজেপিতে যোগদানের কথা সংবাদমাধ্যমের কাছে প্রকাশ্যে এনেছেন। তবে তিনি ছাড়াও আরও বেশ কয়েকজন তৃণমূল থেকে নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি বিজেপিতে যোগদান করবেন বলে খবর।

- Advertisement -

জানা গিয়েছে, আজ দ্বারিবেরিয়া কালী মন্দির সংলগ্ন মাঠে একটি সভা অনুষ্ঠিত হবে। যেখানে উপস্থিত থাকবেন শুভেন্দু অধিকারী। আর সেই সভা থেকে বিজেপিতে যোগদান করবেন সকলে। জনপ্রতিনিধি ছাড়াও একশোর বেশি তৃণমূল কর্মী বিজেপিতে যোগদান করতে পারেন। যা বছরের শুরুতে তৃণমূলের বড়সড় ভাঙন বলে মনে করা হচ্ছে।