বিকল হাইমাস্টের বাতি, সন্ধ্যা নামতেই আঁধার নামছে ফালাকাটা শহরে

157

সুকমল ঘোষ, ফালাকাটা : দীর্ঘ দেড় বছর ধরে ফালাকাটা ব্লকজুড়ে বিকল রয়েছে সাংসদ তহবিলের ৫৭ লক্ষ টাকার হাইমাস্টের বাতিগুলি। ২০১৬-২০১৭ অর্থবর্ষে আলিপুরদুয়ারের তৎকালীন সাংসদ দশরথ তিরকির এলাকা উন্নয়ন তহবিলের টাকায় ওই হাইমাস্টগুলি বসানো হয়েছিল। প্রতিটি হাইমাস্টের জন্য ব্যয় হয়েছিল ৫ লক্ষ ৭১ হাজার ৮২২ টাকা। কিন্তু নিয়মিত রক্ষণাবেক্ষণের অভাবে সেগুলি এখন আর আলো দেয় না। সাতটি হাইমাস্টের বাতি একেবারেই বিকল। বাকি তিনটি হাইমাস্টের বাতিগুলি টিমটিম করে জ্বলে। ফলে রাতের অন্ধকারে ঝুঁকি নিয়ে যাতায়াত করছেন শহরবাসী। ফালাকাটা শহরের মিল রোড মোড়, পুরাতন চৌপথি, দুলাল বাজার, রবীন্দ্রনগর মোড়, স্টেশন মোড়, পাঁচমাইল ও জটেশ্বর সহ ব্লকের বিভিন্ন জায়গায় ১০টি হাইমাস্ট বসানো হয়েছিল। ২১ মিটার উচ্চতার হাইমাস্টগুলির প্রত্যেকটিতে নয়টি করে বাতি রয়েছে। শুরুতে বাতিগুলি সন্ধ্যা থেকে জ্বলত। তবে সময়ে সঙ্গে বিকল হয়েছে বাতিগুলি, আঁধারে ডুবেছে রাস্তা। তিনটির বাতি এতটাই ক্ষীণ যে তাতে কিছু চোখে পড়াই দায়।

ফালাকাটা শহর থেকে আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার, মাথাভাঙ্গা সড়কের সংযোগস্থল মিল রোড মোড়। গুরুত্বপূর্ণ ওই মোড় দিয়ে সারারাত প্রচুর যানবাহন চলাচল করে। সেখানে রয়েছে ট্রাফিক সিগন্যাল ব্যবস্থাও। কিন্তু সেখানকার হাইমাস্টের বাতি বিকল থাকায় সন্ধ্যা নামতেই অন্ধকারে ডুবে যাচ্ছে এলাকা। ফলে সমস্যায় পড়তে হচ্ছে স্থানীয় ব্যবসায়ী, এলাকাবাসী ও পথচারী থেকে শুরু করে ট্রাফিক পুলিশকেও। স্থানীয় বাসিন্দা সমীরণ সাহা বলেন, দেড় বছরেরও বেশি সময় পার হয়ে গেল, এখানকার হাইমাস্টে আলো জ্বলছে না। ফলে সন্ধ্যা হতেই গোটা এলাকা অন্ধকার হয়ে থাকছে। পাশেই রয়েছে একটি যাত্রী শেড। অন্ধকারের সুযোগে একটু রাত বাড়তেই যাত্রী শেডে নানা অসামাজিক কাজ হচ্ছে। আলোর অভাবে এলাকার নিরাপত্তা বিঘ্নিত হচ্ছে। মিল রোডে কর্তব্যরত এক সিভিক ভলান্টিয়ার বলেন, দীর্ঘদিন ধরেই হাইমাস্টের বাতিগুলি বিকল হয়ে রয়েছে। আলো না জ্বলায় অন্ধকারে ট্রাফিক সামলাতেও আমাদের সমস্যায় পড়তে হচ্ছে। শহরের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ বাণিজ্যিক এলাকা পুরাতন চৌপথির ব্যবসায়ী অমিত দে বলেন, প্রায় দেড়-দুই বছর ধরে হাইমাস্টের বাতিগুলি বিকল হয়ে পড়ে রয়েছে। অন্ধকারে সমস্যা হচ্ছে। স্থানীয় বাসিন্দা নিলয় দাস বলেন, পুরাতন চৌপথি মোড়ের হাইমাস্টের ৯টি বাতির দুই-তিনটি টিমটিম করে জ্বলছে। হাইমাস্টের ওই আলো চাঁদের আলো থেকেও কম।

- Advertisement -

ফালাকাটার বিডিও সুপ্রতীক মজুমদার বলেন, বিষয়টি নজরে এসেছে। ওই হাইমাস্ট সাংসদ তহবিলের টাকায় লাগানো হলেও তার ইমপ্লিমেন্ট অথরিটি এনবিডিডি। ফালাকাটার বিকল হাইমাস্টের বাতিগুলি মেরামতির জন্য ব্লক প্রশাসনের তরফে কয়েকমাস আগেই এনবিডিডিকে চিঠি পাঠানো হয়েছে। কবে সেগুলি মেরামত হবে সে ব্যাপারে আমাদের এখনও কিছু জানানো হয়নি। ওই সমস্যা মেটাতে ফের বিষয়টি নিয়ে সংশ্লিষ্ট দপ্তরে যোগাযোগ করা হবে।