সাতমাস শিকলবন্দি ছেলে, কাঠগড়ায় মা

525

ময়নাগুড়ি: মা নিজের ছেলেকে সাতমাস ধরে শিকল দিয়ে ঘরবন্দি করেছেন। গ্রাম পঞ্চায়েত কর্তৃপক্ষ এবং তৃণমূল কংগ্রেস নেতা, পুলিশ গিয়ে ওই যুবকের পায়ের শিকল কেটে মুক্ত করেন। পরে চিকিৎসার জন্য ওই যুবককে ময়নাগুড়ি গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। ময়নাগুড়ি শহরের আনন্দনগর সাহা পাড়ার ঘটনা।

স্থানীয় সূত্রে খবর, এই ঘটনা জানাজানি হতেই এলাকার মহিলারা ওই যুবকের বাড়িতে চড়াও হয়। যুবকের নাম শুভজিৎ চক্রবর্তী (১৯)। শুভজিতের মায়ের নাম লক্ষ্মী চক্রবর্তী। সোমবার রাতে ঘটনাটি জানতে পারার পর গ্রাম পঞ্চায়েতের উপপ্রধান মৌসুমী সেন, প্রধান সজল বিশ্বাস ময়নাগুড়ি থানার পুলিশ নিয়ে গিয়ে ওই যুবককে উদ্ধার করেন। লক্ষ্মীদেবীর বিরুদ্ধে অভিযোগ, তাঁর ভয়ে স্বামী সমীরবাবুও বাড়ি ছেড়ে বাজারে আশ্রয় নিয়েছেন। লক্ষ্মী চক্রবর্তী বলেন, ছেলে আমাকে অত‍্যাচার করে। সামলাতে পারি না। তাই, গত ৭ মাস ধরে বেধেঁ রেখেছি। স্বামী নিজেই বাড়িতে আসে না। ময়নাগুড়ি গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান সজল বিশ্বাস বলেন, ওই মহিলার বিরুদ্ধে অভিযোগ পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে যাই। পুলিশকে সঙ্গে নিয়ে ওই যুবককে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে ময়নাগুড়ি থানার পুলিশ। শুভজিৎকে ময়নাগুড়ি গ্রামীণ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয়েছে।

- Advertisement -