তৃণমূল ছাত্র পরিষদে যোগদান ঝাড়খন্ড মুক্তি মোর্চার সদস্যদের

426

গাজোল: ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চার ছাত্র সংগঠন ঝাড়খন্ড ছাত্র মোর্চার গোটা ব্লক কমিটি রবিবার যোগদান করল তৃণমূল ছাত্র পরিষদে। তৃণমূল ছাত্র পরিষদের জেলা সভাপতি প্রসূন রায়ের হাত ধরে এদিন সকলে যোগদান করে তৃণমূল ছাত্র পরিষদে। একই সাথে ঝাড়খন্ড মহিলা মোর্চার নেত্রীসহ প্রচুর মহিলা যোগ দিলেন তৃণমূল কংগ্রেসে। এদিন দুপুরে কদুবাড়ি সংলগ্ন এলাকায় এক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠিত হয় এই যোগ দান কর্মসূচী।

তৃণমূল ছাত্র পরিষদের জেলা সভাপতি প্রসূন রায় জানিয়েছেন, ছাত্র-ছাত্রী সহ অন্যান্য আদিবাসীদের ভুল বুঝিয়ে দলে টেনেছিল ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চা। কিন্তু এই সংগঠনের পক্ষ থেকে কোনো উন্নয়নমূলক কাজ কর্ম না করে উল্টে আদিবাসীদের কাজে লাগিয়ে প্রায় প্রতিদিনই বিভিন্ন জায়গায় গন্ডগোল কিংবা রাস্তা অবরোধের মতো কর্মসূচি গ্রহণ করছিল তাঁরা। দিন কয়েক আগে টোল প্লাজার সামনে রাস্তা অবরোধকে ঘিরে পুলিশের সাথে খন্ডযুদ্ধ বাঁধে ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চার। সেদিনের ঘটনায় বেশকিছু পুলিশকর্মী আহত হয়েছিলেন। সংগঠনের নেতাদের এই ধরনের ভূমিকা দেখে ছাত্র-ছাত্রী সহ অন্যান্যরা ক্রমশই সংগঠন থেকে বিমুখ হয়ে পরেছিলেন। তাঁরা আমাদের সাথে যোগাযোগ করে আমাদের ছাত্র সংগঠন এবং তৃণমূলে যোগ দেওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেন। তারই ফলশ্রুতিতে এদিন ঝাড়খন্ড ছাত্র মোর্চার ব্লক নেতৃত্ব সহ গোটা কমিটি তৃণমূল ছাত্র পরিষদের যোগদান করে। অন্যদিকে ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চার মহিলা নেত্রী সহ প্রচুর মহিলা তৃণমূলে যোগদান করেছেন। এখন থেকে আমাদের সংগঠনের হয়ে তাঁরা ছাত্র-ছাত্রী এবং সাধারণ মানুষের জন্য কাজ করবেন।

- Advertisement -

ঝাড়খন্ড ছাত্র মোর্চার ব্লক সভাপতি চন্দন সিংহ জানান, আমাদের ভুল বুঝিয়ে সংগঠনে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। পরবর্তীতে আমরা দেখলাম ছাত্রস্বার্থে কোনো আন্দোলন কর্মসূচি গ্রহণ করা হচ্ছে না। সাধারণ মানুষের স্বার্থ সম্পর্কিত কোনও বিষয়ে আন্দোলন না করে নেতাদের ব্যক্তিগত স্বার্থসিদ্ধির জন্য আন্দোলন করা হচ্ছে। ভুল বুঝিয়ে কর্মী সমর্থকদের ঠেলে দেওয়া হচ্ছে বিপদের মুখে। আর তার জেরেই আমরা ওই সংগঠন ছাড়তে বাধ্য হলাম। আমাদের গোটা ব্লক কমিটি এদিন তৃণমূল ছাত্র পরিষদে যোগদান করলো। এখন থেকে আমরা ছাত্রদের স্বার্থে কাজ করব, দাঁড়াবো সাধারণ মানুষের পাশে।