রাস্তার ধারে বস্তাবন্দি একাধিক পিপিই কিট, মাস্ক, গ্লাভস, আতঙ্কে গ্রামবাসীরা

86

বেলাকোবা: সাতসকালে রাস্তা ও ঝোপ ঝাড়ে একাধিক পিপিই কিট পড়ে থাকায় আতঙ্কিত হয়ে গ্রামবাসীরা এলাকা স্যানিটাইজেশনের দাবি তুলেছেন। ঘটনাটি বুধবার রাজগঞ্জ ব্লকের বেলাকোবার শিকারপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের পাতিলাভাসা এলাকার। ওই গ্রামের বিধায়ক খগেশ্বর রায়ের বাড়ির কিছু দূরে জঙ্গলে ও রাস্তার ধারে বস্তাবন্দি ব্যবহৃত একাধিক পিপিই কিট, মাস্ক, গ্লাভস পাওয়া গিয়েছে। একদিকে করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে সংক্রমণ। বাড়ছে মৃত্যুর সংখ্যাও। তা সত্ত্বেও জনগণের মধ্যে সচেতনতা আসেনি। এই ফেলে যাওয়া ব্যবহৃত পিপিই কিটে করোনার জীবাণু থাকার আতঙ্কে রয়েছে গ্রামবাসীরা।

স্থানীয় বাসিন্দা রাজ্যেশ্বর রায় বলেন, ‘সকালে উঠে তাঁরা পরিত্যক্ত পিপিই কিট, মাস্ক, গ্লাভস সহ অন্যান্য সামগ্রী দেখতে পেয়ে আতঙ্কিত হয়ে ওঠেন। বিষয়টি বিধায়ক খগেশ্বর রায়কে জানান।’ খগেশ্বর বাবু বলেন, ‘রাতের অন্ধকারে কে বা কারা কিটগুলি ফেলে গিয়েছে। জীবাণু থাকতে পারে আশঙ্কাতে তিনি বেলাকোবা পুলিশ ফাঁড়িকে জানালে ফাঁড়ি কর্তৃপক্ষ সেগুলি উদ্ধার করে।’

- Advertisement -

রাজগঞ্জ থানার আইসি পংকজ সরকার বলেন, ‘বিধায়ক খগেশ্বর বাবুর মাধ্যমে খবর পেয়েই পুলিশ পিপিই কিট গুলি উদ্ধার করে জ্বালিয়ে দিয়েছে। সেই সঙ্গে তাঁরা ঘটনার তদন্ত করছেন।’ শিকারপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের উপপ্রধান অমলেন্দু ভৌমিক বলেন, ‘এই সড়কপথে সাহুডাঙি শ্মশান ঘাটে যাতায়াতকারী সড়ক যান থেকে সম্ভবত পিপিই কিটগুলি বস্তাবন্দি করে ফেলা হয়ে থাকতে পারে। এলাকাবাসীর আতঙ্ক দূর করতে তাঁরা ওই এলাকায় স্যানিটাইজেশন করাবেন।’