অনশন তুলে নিলেন বহুমুখী স্বাস্থ্যকর্মীরা

570

আলিপুরদুয়ার: ছত্রিশ দিনের মাথায় অনশন তুলে নিলেন আলিপুরদুয়ারের বহুমুখী পুরুষ স্বাস্থ্য কর্মীরা। বুধবার এ খবর জানান, আলিপুরদুয়ারের মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক ডাঃ গীরিশ চন্দ্র বেরা। তিনি বলেন, এদিন জেলা প্রশাসনের আধিকারিক এবং আমরা স্বাস্থ্য দপ্তরের পক্ষ থেকে অনশনকারীদের সঙ্গে আলোচনায় বসি। সেখানে তাদের দাবিদাওয়া প্রশাসন রাজ্য সরকারকে জানানো হবে বলে আশ্বস্ত করা হয়েছে। এরপরেই আন্দোলনকারিরা তাদের অনশন তুলে নেয়। আমরা তাদের দ্রুত কাজে যোগ দেওয়ার অনুরোধ করেছি।

আলিপুরদুয়ার জেলা স্বাস্থ্য দপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে, মূলত ম্যালেরিয়া নিয়ন্ত্রণের কাজে প্রায় এগারো বছর আগে আলিপুরদুয়ার জেলা সহ রাজ্যের বেশ কিছু জায়গায় বহুমুখী পুরুষ স্বাস্থ্য কর্মী নিয়োগ করা হয়। বিজ্ঞান নিয়ে উচ্চমাধ্যমিক পাশ করা ৭২ জনকে আলিপুরদুয়ার জেলায় এই কাজের জন্য নিয়োগ করা হয়। প্রাথমিক ভাবে এদের মাসিক সান্মানিক ছিল ছয় হাজার টাকা। তবে ২০১১ সালে এদের বেতন পুনঃবিন্যাস হয়ে বেড়ে দাঁড়ায় ১৩ হাজার ৮০০ টাকা। কিন্তু অভিযোগ, এরপর প্রায় দশ বছর ধরে তাদের আর বেতন বৃদ্ধি হয়নি। এমনকি ম্যালেরিয়া নিয়ন্ত্রণে তাদের নিযুক্ত করা হলেও বর্তমানে তাদের ডেঙ্গি প্রতিরোধ সহ করোনা মোকাবিলায় কাজ করতে হচ্ছে। স্বাস্থ্য দপ্তরের অন্য স্থায়ী চাকরিজীবীর মতোই তারাও রাতদিন এক করে কাজ করে চলছেন। কিন্তু অভিযোগ, করোনা মোকাবিলায় ফ্রন্ট লাইনে তারা কাজ করলেও বর্তমানে রাজ্য সরকার বিভিন্ন সুবিধা ঘোষণা করলেও তা তারা পাচ্ছেন না। এমনকি দীর্ঘ দশ বছর ধরে তাদের বেতন বৃদ্ধিও হয়নি। তাই গত অগাস্ট মাস থেকে তারা দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত অনির্দিষ্ট কালের জন্য অনশনে বসেছিল। এতদিন আলিপুরদুয়ার সিএমওএইচ অফিসের সামনেই তারা আন্দোলন চালিয়ে গেছেন। বুধবার অবশেষে তারা তাদের আন্দোলন তুলে নেন।

- Advertisement -

এ বিষয়ে বহুমুখী পুরুষ স্বাস্থ্যকর্মীদের আলিপুরদুয়ার জেলার সম্পাদক অপুতন্ত্র বলেন, সিএমওএইচ স্যার এবং জেলা প্রশাসনের অনুরোধে আমরা আপাতত আমাদের আমরণ অনশন তুলে নিলাম। কিন্তু আমাদের ন্যায্য দাবী আদায়ের জন্য আগামীতে রিলে অনশন করবো।