করোনা টেস্ট করাতে অভিনব পন্থা পুর কর্তৃপক্ষের

624

হলদিবাড়ি: করোনা টেস্টের সংখ্যা বৃদ্ধিতে ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার জন্য অভিনব পন্থা অবলম্বন করল পুর কর্তৃপক্ষ। শুক্রবার স্বাস্থ্যবিধি অমান্য করে মাস্ক ছাড়াই পথ চলতি মানুষদের ধরে নিয়ে করোনা টেস্ট করতে বাধ্য করানো হয়। এরজন্য হলদিবাড়ি থানার পুলিশের সহযোগিতা নেয় পুর কর্তৃপক্ষ। আর এর ফলও মেলে হাতে হাতে। এদিন নতুন করে মোট ১১ জনের শরীরে করোনা সংক্রমণের হদিস মেলে। এই খবর চাউর হতেই হলদিবাড়ি শহরে চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে। টেস্টের ভয়ে অনেকেই ঘুরপথে চলাচল করতে শুরু করেন।

এদিন ব্লক ও পুর স্বাস্থ্য দপ্তরের উদ্যোগে হলদিবাড়ি শহরের নবনির্মিত বাস টার্মিনাসে র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্টের জন্য শিবিরের আয়োজন করা হয়। সেখানে হলদিবাড়ি শহরের বাসিন্দা ও ব্যবসায়ীদের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। পাশাপাশি টার্মিনাসের সামনের হলদিবাড়ি-দেওয়ানগঞ্জ রাজ্য সড়ক দিয়ে চলাচল করা লোকজন ও বিভিন্ন যানবাহনের যাত্রীদের গাড়ি থেকে নামিয়ে নমুনা সংগ্রহ করা হয়। এর নেতৃত্ব দেন পুরসভার স্যানিটারি ইন্সপেক্টর শরবিন্দু ঘোষ।

- Advertisement -

হলদিবাড়ির বিএমওএইচ তাপস কুমার দাস জানান, এদিন শহরে মোট ১২১ জন ও গ্রামে ৬৯ জনের র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্ট করা হয়। এছাড়াও গ্রামে আরও ১৩৮ জনের ভিটিএম (ভাইরাল ট্রান্সপোর্ট মিডিয়াম) টেস্ট হয়েছে। এদিনের র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্টের রিপোর্ট অনুযায়ী ব্লকে নতুন করে মোট ১১ জনের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে।