বিয়ের প্রস্তাবে নাকোচ, কিশোরীকে খুন করে গ্রেপ্তার যুবক

755

বর্ধমান, ২৮ অগাস্টঃ কিশোরীকে খুনের অভিযোগে গ্রেপ্তার হল এক যুবক। ধৃতের নাম সৌমিত্র মাঝি ওরফে শুভ। সে পূর্ব বর্ধমানের আউসগ্রামের বাগবাই গ্রামের বাসিন্দা। আউসগ্রাম থানার পুলিশ বৃহস্পতিবার রাতে মঙ্গলকোটের গোপালপুর থেকে অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করে। সুনির্দিষ্ট ধারায় মামলা রুজু করে পুলিশ শুক্রবার ধৃতকে বর্ধমান আদালতে পেশ করে। খুনের ঘটনার খুনে ব্যবহৃত অস্ত্র উদ্ধারের জন্য তদন্তকারী অফিসার এদিন ধৃতকে ৭ দিন নিজেদের হেপাজতে নেওয়ার আর্জি জানিয়ে আদালতে আবেদন জানান। সিজেএম সেই আবেদন মঞ্জুর করেছেন।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, কিশোরী মৌ ঘোড়ুইয়ের বাড়ি বুদবুদ থানার খাণ্ডারি গ্রামে। মানকরে টিউশন পড়তে যাওয়ার জন্য গত ১৮ জুন সকাল সাড়ে ৮টা নাগাদ ওই কিশোরী বাড়ি থেকে বের হয়। তারপর থেকে সে আর বাড়ি ফেরেনি। পরেরদিন আউসগ্রাম থানার সাহেবডাঙা এফসিআইয়ের গোডাউনের পিছন থেকে ওই কিশোরীর মৃতদেহ উদ্ধার হয়। কিশোরীকে খুন করা হয়েছে বলে দাবি করেন তাঁর বাবা তরুণ ঘোড়ুই। আউসগ্রাম থানায় তিনি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ খুনের মামলা রুজু করে তদন্তে নামে। পুলিশ জানতে পারে, শুভ বেশ কিছুদিন ধরে মৌকে বিয়ের প্রস্তাব দিচ্ছিল। মৌ সম্মতি না দেওয়ায়, তাকে খুনের হুমকিও দেওয়া হয়েছে।

- Advertisement -

ঘটনার দিন কিশোরী যখন টিউশন পড়ে বাড়ি ফিরছিল তখন শুভ ও অপর এক যুবক তাকে তুলে নিয়ে যায় বলে অভিযোগ। শুভর প্রস্তাব না মানাতেই তাকে খুন করা হয়েছে বলে পুলিশের অনুমান। খুনের প্রকৃত কারণ জানতে পুলিশ ধৃতকে নিজেদের হেপাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেছে বলে পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে।