পারিবারিক বিবাদের জেরে খুন যুবতী, গুরুতর জখম হলেন মা

157

তুফানগঞ্জ, ১ ফেব্রুয়ারিঃ পুরোনো পারিবারিক বিবাদের জেরে খুন হতে হল এক যুবতীকে। মৃত ওই যুবতীর নাম অঙ্কিতা সরকার (২৩)। পাশাপাশি, গলায় ধারালো অস্ত্রের আঘাতে গুরুতর আহত হয়েছেন তাঁর মা সান্ত্বনা সরকার। সোমবার রাত বক্সিরহাট থানার অন্তর্গত কুড়িতলা এলাকায় ঘটনাটি ঘটেছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে স্থানীয়দের সহযোগিতায় আহত ২ জনকে চিকিৎসার জন্য তুফানগঞ্জ মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যায়। কর্তব্যরত চিকিৎসক অঙ্কিতা সরকারকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

অঙ্কিতার কাকাতো ভাই সৌম্যজিৎ সরকার বলেন, বহু বছর আগে গনেশ নামে এক যুবকের তাঁর বোনের বিয়ে হয়েছিল। এরপর তাঁদের সম্পর্কে ফাঁটল ধরে। এমনকি গনেশের নামে মামলা হয়েছিল। সে জেলও খেটেছে। এরপর সে জামিনে মুক্তি পায়। গনেশের বাড়ি অসমের রাঙ্গিয়ায়। তিনি দাবি করেছেন, ওই যুবকই এই কাণ্ড ঘটিয়েছে। ফোন মারফৎ খবর পেয়ে তিনি হাসপাতালে এসেছিলেন বলে জানান। তুফানগঞ্জ মহকুমা হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, মা ও মেয়েকে গলায় ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করার হয়েছে। প্রাথমিক চিকিৎসার পর সান্ত্বনা সরকারকে চিকিৎসার জন্য কোচবিহার সরকারি মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

- Advertisement -

ঘটনার খবর পেয়ে হাসপাতালে গিয়েছিলেন তুফানগঞ্জ মহকুমা পুলিশ আধিকারিক জ্যাম ইয়ং জিম্বা। তবে, এই বিষয়ে তিনি কোনও মন্তব্য করতে চাননি। পুলিশ সূত্রের খবর, ইতিমধ্যেই ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে। দোষীকে ধরার প্রক্রিয়াও শুরু করা হয়েছে। তুফানগঞ্জ মহকুমা হাসপাতালের সুপার ডঃ মৃনাল কান্তি অধিকারী বলেন, যুবতীর মৃতদেহ তুফানগঞ্জ মহকুমা হাসপাতালে রয়েছে। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার মৃতদেহ কোচবিহার সরকারি মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের মর্গে ময়নাতদন্ত করা হবে।