মানবিকতার নজির, করোনাকালে ব্রাহ্মণ পরিবারের পাশে মুসলিম দম্পতি

88

বর্ধমান: ধর্মের বিভেদ ভুলে করোনাকালে এক ব্রাহ্মণ পরিবারের পাশে দাঁড়ালেন স্থানীয় মুসলিম দম্পতি। মানবিকতার পরিচয় দিয়ে ওই পরিবারের হাতে খাদ্যসামগ্রী তুলে দিলেন ওই দম্পতি। এছাড়াও নগদ অর্থ তুলে দেন ওই ব্রাহ্মণ দম্পতির হাতে। ফজিলা বেগমের এহেন কর্মকাণ্ড নজর কেড়েছে আপামর গলসিবাসীর। কুর্নিশ জানিয়েছেন শুভবুদ্ধি সম্পন্ন মানুষেরা।

পূর্ব বর্ধমানের গলসি-১ নম্বর ব্লকের বাসিন্দা ওই ব্রাহ্মন দম্পতি বর্তমানে ভিটেছাড়া। জানা গিয়েছে, গতবছর আমপানের তাণ্ডবে ওই বাহ্মণ দম্পতির বসতবাড়ি ক্ষতিগ্রস্থ হয়। অর্থাভাবে তা মেরামত করা সম্ভব হয়ে ওঠেনি। অন্যদিকে প্রশাসনিকভাবেও কোনও সহযোগীতা পাননি বলেও অভিযোগ ওই দম্পতির। কোনওমতে সেই ভাঙা ঘরেই দিন কাঠছিল তাঁদের। তবে ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের আগে প্রাণ ভয়ে ভাঙাচোরা বাড়ি ছেড়ে আশ্রয় নেন এক নিকট আত্মীয়ের বাড়িতে। সেখানেই দুই সন্তান নিয়ে দিনযাপন করছেন ওই বাহ্মণ দম্পতি। বিষয়টি জানতে পেরে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেন গলসির রাইপুর গ্রামের বাসিন্দা জাহির আব্বাস মণ্ডল ও তাঁর স্ত্রী ফজিলা বেগম।

- Advertisement -

ফজিলা বেগমকে ঈশ্বরের দূতের সঙ্গে কুলনা করে ওই ব্রাহ্মণ দম্পতির মন্তব্য, তাঁরা যেভাবে পাশে দাঁড়ালেন তা কোনওদিনও ভোলার নয়। আজীবন কৃতজ্ঞ থাকব। ফজিলা বেগম বলেন, ‘নাম-ডাকের জন্য নয়। ব্রাহ্মণ পরিবারের দুরবস্থার কথা জানতে পেরেই ওই পরিবারের পাশে দাঁড়াই। আল্লার কাছে প্রার্থণা করি ওনারা যেন ভাল থাকেন।’